চা-চক্র ভবিষ্যত রাজনীতির জন্য ইতিবাচক : জাপা


213 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
চা-চক্র ভবিষ্যত রাজনীতির জন্য ইতিবাচক : জাপা
ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৯ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চা-চক্রের আয়োজন ভবিষ্যতে রাজনীতির জন্য ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের।

শনিবার সন্ধ্যার দিকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে চা-চক্র শেষে বের হয়ে সাংবাদিকদের একথা জানান তিনি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক সংলাপে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, জোট এবং সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সম্মানে বিকেলে এক চা-চক্রের আয়োজন করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

গণভবনের দক্ষিণ লনের সবুজ চত্বরে আয়োজিত এই চা-চক্রে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

চা-চক্র শেষে গণভবন থেকে বের হয়ে জি এম কাদের সাংবাদিকদের বলেন, যাদের সঙ্গে পরিচয় ছিল তাদের সঙ্গে সম্পর্ক ঝালাই করে নেওয়া এবং যাদের সঙ্গে কম পরিচয় ছিল, তাদের সঙ্গে পরিচিত হওয়া প্রধানমন্ত্রীর আজকের চা চক্রের মূল বিষয় ছিল।

তিনি বলেন, সবার সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে তোলাই চা-চক্রের উদ্দেশ্য ছিল। রাজনৈতিক এখানে নেতারা খোলামেলা মনে আলোচনা করেছেন। এটা ভবিষ্যতে রাজনীতির জন্য ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

এসময় জাপা মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, এ ধরনের আয়োজন ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য ভালো।

তিনি বলেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছি, যেখানে তার নিরাপত্তার কোনো সমস্যা হবে না, এ রকম কোনো একটি জায়গায়। প্রধানমন্ত্রী দাওয়াত কবুল করেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে চা চক্রে অংশ নেওয়া দলগুলো মধ্যে রয়েছে- জাতীয় পার্টি, ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ-ইনু) জাপা (মঞ্জু), জাসদ (আম্বিয়া), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), গণতন্ত্রী পার্টি, সাম্যবাদী দল, বিকল্পধারা বাংলাদেশ, ইসলামী ঐক্যজোট, তরিকত ফেডারেশন এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট।

প্রধানমন্ত্রী বিকেল ৪টা ১০ মিনিটে চা চক্রের অনুষ্ঠান স্থলে আসেন এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। তিনি বিভিন্ন টেবিলে ঘুরে ঘুরে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।