জয়ের জন্য ২৪৭ রান দরকার বাংলাদেশের


369 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
জয়ের জন্য ২৪৭ রান দরকার বাংলাদেশের
অক্টোবর ২৪, ২০১৮ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

চট্টগ্রামে ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশের সামনে ২৪৭ রানের লক্ষ্য দাঁড় করিয়েছে জিম্বাবুয়ে। টস হেরে ব্যাটে নামা জিম্বাবুয়ে শুরুতেই উইকেট হারায়। কিন্তু দ্বিতীয় উইকেটে ৫২ ও তৃতীয় উইকেট ৭৭ রানের জুটিতে ভালো ভিত্তি পাই তারা। টপ অর্ডারের অন্য ব্যাটসম্যানরাও দৃড়তা দেখায়। কিন্তু শেষটা বাংলাদেশ বোলাররা নিজেদের নিয়ন্ত্রনে রাখে। আর তাতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৪৬ রান তুলতে পারে তারা।

জিম্বাবুয়ে শুরুতে ১৮ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায়। এরপর ৭০ রানের মাথায় ফিরে যান জহুয়া। তিনি ফিরে যাবার পর টেইলর-উইলিয়ামসের উইকেটে ভর করে ৭৭ রান যোগ করে সফরকারীরা। ব্যক্তিগত ৭৫ রানে ভয়ঙ্কর হওয়া টেইলরকে ফেরান মাহমুদুল্লাহ। এরপর ৪৭ রানে সাইফউদ্দিন ফেরান শেন উইলিয়ামসকে।

কিন্তু টেইলর-উইলিয়ামসকে আউট করেও জিম্বাবুয়েকে বড় চাপে ফেলতে পারেনি বাংলাদেশ। এরপর ক্রিজে আসা সিকান্দার রাজাও ভালো শুরু করেন। তিনি খেলেন ৬১ বলে ৪৯ রান। এরপর মাশরাফির বলে ফেরেন। জিম্বাবুয়ের রান তখন ৪৫.৩ ওভারে ৫ উইকেটে ২২৯। দলের ওই রানেই ফিরে যান পিটার মুর। পরের ৪ ওভারে জিম্বাবুয়ে মাত্র ১৭ রান তুলতে পারে।

বাংলাদেশ দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচেও অপরিবর্তিত দল নিয়ে মাঠে নেমেছে। ক্যারিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচে শূন্য করে ফেলা ফজলে রাব্বি আছেন একাদশে। এক পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নেমেছে জিম্বাবুয়ে। তাদের দলে ফিরেছেন এলটন চিগুমবুরা।

চট্টগ্রামে শিশির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। এছাড়া সর্বশেষ সাত দিবারাত্রীর ওয়ানডে ম্যাচের চারটিতে এখানে পরে ব্যাট করা দল জয় পেয়েছে। তাই টসে জয় বাংলাদেশের পক্ষে গেছে। বাংলাদেশ অধিনায়ক বল করার সিদ্ধান্ত নিতেও হয়তো খুব বেশি ভাবেননি।

বাংলাদেশ একাদশ: লিটন দাস, ইমরুল কায়েস, ফজলে রাব্বি, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল্লাহ, মেহেদি মিরাজ, সাইফউদ্দিন, মাশরাফি মর্তুজা (অধি.), মুস্তাফিজুর রহমান, নাজমুল ইসলাম অপু।

জিম্বাবুয়ে একাদশ: হ্যামিলটন মাসাকাদজা (অধি.), ক্যাপহাস জহুয়া, ব্রেন্ডন টেলর, শেন উইলিয়ামস, সিকান্ডার রাজা, এলটন চিগুমবুরা, পিটার মুর, কাইল জারভিস, ব্রেন্ডন মাভুত, ডোনাল্ড ট্রিপানো, টেন্ডি সাতারা।