‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগান নিয়ে স্যাটেলাইট যাচ্ছে মহাকাশে


548 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগান নিয়ে স্যাটেলাইট যাচ্ছে মহাকাশে
মে ১০, ২০১৮ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
দেশের কৃত্রিম উপগ্রহ ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ মহাকাশের ডানা মেলার আর কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা মাত্র। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে বৃহস্পতিবার রাত ২টা থেকে ভোর ৫টার মধ্যে যে কোনো সময় মহাকাশের পথে যাত্রা শুরু করবে স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট।

স্মৃতি হিসেবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের গায়ে বাংলায় ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগানটি লেখা রয়েছে। এই স্লোগান নিয়েই মহাকাশে যাবে স্যাটেলাইটটি।

ফ্লোরিডার স্থানীয় সময় বুধবার একটি হোটেলে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের সম্মানে স্পেসএক্সের দেওয়া নৈশভোজ শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

তারানা হালিম বলেন, কয়েক মাস আগে যখন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর অগ্রগতি দেখতে ফ্লোরিডা আসি তখন স্যাটেলাইট প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ফ্রান্সের থ্যালাস অ্যালেনিয়া স্যাটেলাইটের গায়ে স্মৃতি হিসেবে কিছু একটা লিখতে বলে।

সে সময় তারানা হালিম তাদের বলেন, স্যাটেলাইটের গায়ে আমার কিছু লেখার এখতিয়ার নেই। যদি এতে কারও নাম লিখতেই হয় তাহলে তা অবশ্যই আমাদের জাতির জনকের নাম লিখতে হবে। আর আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামের স্লোগান হচ্ছে জয় বাংলা। তখন নিজ হাতে স্যাটেলাইটের গায়ে লিখে দেই ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে দেশকে এগিয়ে যাওয়ার পথে অধ্যায়ের সূচনা করেছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালে, বেতবুনিয়ায় দেশের প্রথম ভূ-উপগ্রহ স্থাপনের মাধ্যমে। সেই উপগ্রহই ছিল মহাকাশের সঙ্গে দেশের যোগাযোগের প্রথম সেতুবন্ধ। তখন বিদেশি স্যাটেলাইটের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে আবহাওয়ার পূর্বাভাস-সংক্রান্ত তথ্য পাওয়া ছিল সেই ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্রের কাজ।

জাতির পিতা সেদিন স্বপ্নের যে বীজ বুনেছিলেন, তার পথ ধরেই আজ আকাশে উড়ছে দেশের প্রথম নিজস্ব স্যাটেলাইট। এর নামও জাতির পিতার নামেই, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১। ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী পরিকল্পনা, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সার্বক্ষণিক তত্ত্বাবধান এবং দিকনির্দেশনায় বিশ্বের ৫৭তম দেশ হিসেবে বাংলাদেশ আজ প্রবেশ করতে যাচ্ছে গৌরবময় বিশ্ব স্যাটেলাইট ক্লাবে।