টিকিটের জন্য আজও প্রবাসীদের ভিড়


115 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
টিকিটের জন্য আজও প্রবাসীদের ভিড়
সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

সৌদি আরবে ফেরার টিকিটের জন্য সৌদি এয়ারলাইনস ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের কার্যালয়ের সামনে ভিড় করেছেন প্রবাসীরা। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই কাওরান বাজারে সাউদিয়া ও মতিঝিলে বিমানের টিকিটের বিক্রয় কেন্দ্রের সামনে তাদের ভিড় করতে দেখা যায়।

সকালে পুলিশের পক্ষ থেকে টিকিট প্রত্যাশীদের উদ্দেশে মাইকে জানানো হয়, আজ ১ থেকে ৫০০ নম্বর টোকেনধারীদের টিকিট দেওয়া হবে। শুক্রবার ৫০১ থেকে ৮৫০, শনিবার ৮৫১ থেকে ১২০০, রোববার ১২০১ থেকে ১৫০০ নম্বর টোকেনধারীদের টিকিট দেওয়া হবে। যারা টোকেন পাননি, তাদের ২৯ সেপ্টেম্বর আসতে বলা হয়েছে।

তবে প্রবাসী টিকিটপ্রত্যাশীদের কারও কারও অভিযোগ, এ পর্যন্ত ১ থেকে ২০০ জনকে টোকেন দেওয়া হয়েছে।

সোহেল নাম এক টিকিটপ্রত্যাশী বলেন, ‘এত টোকেন কীভাবে যোগ হলো? আমদের ফ্লাইটের ব্যাপারে কী করা হবে?’

সৌদি এয়ারলাইনসের এক সূত্রে জানা গেছে, এ মাসে তারা একাধিক ফ্লাইট পরিচালনা করতে পারবে। আগামী অক্টোবর মাসেও পর্যাপ্ত ফ্লাইটে করে প্রবাসীদের সৌদিতে নেওয়া যাবে। কিন্তু সৌদিতে যাওয়ার ক্ষেত্রে কোভিড-১৯ নেগেটিভ সনদ পাওয়া বাধ্যতামূলক। সনদ পাওয়ার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ফ্লাইট নিতে হবে।

এদিকে, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস আটকে পড়া সৌদি প্রবাসীদের জন্য দুইটি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করবে। বুধবার বিমান ঘোষণা করে, ১৬ ও ১৭ মার্চের জেদ্দা ও রিয়াদের বিমানের রিটার্ন টিকিটধারী যাত্রীদের জন্য ২৬ সেপ্টেম্বর ঢাকা-জেদ্দা ও ২৭ সেপ্টেম্বর ঢাকা-রিয়াদে যাত্রীবাহী ফ্লাইট পরিচালনা করবে। শুধু ১৬ ও ১৭ মার্চের ফিরতি টিকিটধারী যাত্রীদের এই ফ্লাইটে বুকিংয়ের জন্য বিমান সেলস অফিসে টিকিট, পাসপোর্ট, সৌদি আরবের অনুমোদনসহ প্রয়োজনীয় কাগজসহ বৃহস্পতিবার যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

তবে সৌদি এয়ারলাইনস এখন পর্যন্ত মাত্র একটি অতিরিক্ত ফ্লাইটের জন্য আবেদন করেছে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিজুর রহমান।

তিনি বলেন, সৌদি এয়ারলাইনস ২৮ সেপ্টেম্বর একটি ফ্লাইটের জন্য আবেদন করেছে। এর বাইরে বাড়তি ফ্লাইটের আবেদন করেনি। তারা যতগুলো ফ্লাইটের আবেদন করবে, ততগুলোর অনুমতি দেওয়া হবে।

ছুটিতে দেশে এসে আটকা পড়েন প্রায় ৮০ হাজার প্রবাসীকর্মী। প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ছুটিতে আসা কর্মীদের তিন দফায় মোট সাত মাস ছুটি অনুমোদন করা হয়েছে। সর্বশেষ অনুমোদিত ছুটি অনুসারে ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে কাজে যোগ দিতে বলা হয়। দেশে আটকা অন্তত ৫০ হাজার প্রবাসীর ভিসা ও ইকামার মেয়াদ ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে।

সাত মাস পর কাজে ফিরে যাওয়ার সুযোগ এলেও ফ্লাইটের অভাবে তৈরি হয় অনিশ্চয়তা। টিকিটের দাবিতে তিনদিন ধরে সৌদি এয়ারলাইনসের কার্যালয়, পররাষ্ট্র ও প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং বিমানের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করেছেন প্রবাসী কর্মীরা।

তাদের বিক্ষোভের মুখে বুধবার সন্ধ্যায় জানা যায়, সৌদি কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ বিমানকে ১ অক্টোবর থেকে সে দেশে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দিয়েছে। একইসঙ্গে প্রবাসী কর্মীদের ইকামার (কাজের বৈধ অনুমতিপত্র) মেয়াদ নতুন করে ২৪ দিন বাড়িয়েছে।

এর আগে, প্রবাসীদের আন্দোলনের মুখে তাদের ইকামা ও ভিসার মেয়াদ নতুন করে তিন মাস বাড়াতে গত মঙ্গলবার সৌদি সরকারকে অনুরোধ করে চিঠি দিয়েছিল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।