টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩ যুবক নিহত


92 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩ যুবক নিহত
জুন ১৬, ২০১৯ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

কক্সবাজারের টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন যুবক নিহত হয়েছেন। নিহতরা ইয়াবাকারবারি ও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী বলে দাবি র‌্যাবের।

শনিবার রাত ১২ টার দিকে টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়ের শামলাপুরের পাহাড়ি এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- কক্সবাজার সদরের চৌধুরী পাড়ার গবি সুলতানের ছেলে দিল মোহাম্মদ (৪২), একই এলাকার মোহাম্মদ ইউনুছের ছেলে রাসেদুল ইসলাম (২২) ও চট্রগ্রামের মাস্টার হাট আমিরাবাদ লোহাগড়ার আবুল কাসেমের ছেলে শহিদুল ইসলাম (৪২)।

র‌্যাব জানিয়েছে, ঘটনাস্থল থেকে ১ লাখ ৪০ হাজার পিস ইয়াবা, ৪টি দেশিয় তৈরি অস্ত্র (এলজি) ও ২১ রাউন্ড তাজা কার্তুজ জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। তারা হলেন- সৈনিক মোহাম্মদ জাহাগীর (৩২) ও কনেসটেবল মোহাম্মদ সোহেল (২৮)।

র‌্যাব-১৫ এর টেকনাফ ক্যাম্পের ইনচার্জ লে. মির্জা শাহেদ মাহতাব জানান, শনিবার গভীর রাতে একদল ইয়াবাকারবারি ও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী টেকনাফের হোয়াইক্যংয়ের পাহাড়ি ঢালা নামক এলাকায় ইয়াবার একটি বড় চালান পাচার করছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে তিনিসহ র‌্যাবের একটি বিশেষ দল ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সেখানে থাকা অস্ত্রধারীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষায় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। ওই সময় দুই র‌্যাব সদস্য আহত হন। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটলে ঘটনাস্থলে তিনজনেক গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে র‌্যাব তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শংকর চন্দ্র দেবনাথ সবাইকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য নিহতদের লাশ কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতরা দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছিল। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

চিকিৎসক শংকর চন্দ্র দেবনাথ জানান, রাতে র‌্যাব গুলিবিদ্ধ তিনজনকে নিয়ে আসে। তাদের শরীরে একাধিক গুলির চিহ্ন ছিল। এছাড়াও আহত র‌্যাব সদ্যদের চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।