টেলিটকের গ্রাহকরা রি-রেজিস্ট্রেশন বিড়াম্বনায়


851 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
টেলিটকের গ্রাহকরা রি-রেজিস্ট্রেশন  বিড়াম্বনায়
মে ২৪, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

শেখ আসাদুজ্জামান (মুকুল) দরগাহপুর:
দরগাহপুর-সাতক্ষীরা রুটের বাসে ব্যাক্তিগত প্রয়োজনে সাতক্ষীরা যাচ্ছিলাম। পাশের সিটে পঞ্চাশ উর্দ্ধো একজন ভদ্রলোক ছিলেন। তাকে জিঞ্জাস করলাম কোথায় যাচ্ছেন। ভদ্রলোক উত্তর দিলেন সাতক্ষীরা। কারণ জানতে চাইলে তিনি জানালেন টেলিটকের সিম রি-রেজিস্ট্রেশন করতে যাচ্ছেন। ভদ্রলোককে আবার জিঞ্জাস করলাম  সাতক্ষীরায় কেন? তিনি উত্তর দিলেন যে, সরকারি একটা কোম্পানি অথচ এই দিকে কোথাও কোন রি-রেজিস্ট্রেশন  সেন্টার নাই তাই কষ্ট করে ৩৫ কিলোমিটার দুরে সাতক্ষীরায় টাকা খরচ করে রি-রেজিস্ট্রেশন  করতে যাচ্ছি। আবারও জিঞ্জাস করলাম আপনার বাড়ি কোথায়? ভদ্রলোক এবার বিরক্ত হয়ে বললেন পাইকগাছার রাড়–লী ইউনিয়ানে। থাক ভদ্রলোকে আর বিরক্ত করে লাভ নাই আমার আর বুঝতে বাকি থাকল না যে, রাড়–লী, কঠিপাড়া, দরগাহপুর, বড়দাল , শাহপাড়া, কাদাকাটির মত বড়বড় বাজার গুলোতে কোথাও কোনো  টেলিটকের রি-রেজিস্ট্রেশন  সেন্টার নাই । হ্যা জানাচ্ছিলাম দেশের সরকারি মালিকানাধীন একমাত্র মোবাইল কোম্পানি টেলিটক-এর গ্রাহকদের বিড়াম্বনা এবং ইউনিয়ান পর্যায়ে তাদের রি-রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতির সর্বশেষ অবস্থা। অথচ বি.টি.আর.সি এর আদেশ অনুযায়ী আগামী ৩১শে মে ২০১৬ এর মধ্যে সকল সিম রি-রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। না করলে সরকারি নির্দেশ মোতাবেগ সিমগুলো স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে টেলিটকের হেল্পলাইন (০১৫৫০১২১১২৫)এ কল করে কাস্টমার কেয়ার কর্মকর্তা রাশেদকে রি-রেজিস্ট্রেশন সেন্টার না থাকলে কি করণীয় জানতে চাইলে তিনি জানান যে তাদের মোবাইল অপারেটর বাংলালিংক এবং রবির সাথে সমোঝতা চুক্তি হয়েছে। এখন থেকে টেলিটকের গ্রাহকরা বাংলালিংক এবং রবির কাস্টমার কেয়ার সেন্টার থেকে তাদের সিমগুলো রি-রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। পরবর্তীতে এ ব্যাপারে বাঁকা বাজারস্থ বাংলালিংক এবং রবির কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে জানতে চাইলে কর্তব্যরত কর্মকর্তারা জানান যে তারা টেলিটকের সিম রি-রেজিস্ট্রেশনের ব্যাপারে এখনো কোনো নির্দেশনা পাননি।

তবে খোজ নিয়ে জানা যায় পাইকগাছা বাজার, আশাশুনি বাজারে একটি করে টেলিটকের নিজস্ব রি-রেজিস্ট্রেশন সেন্টার রয়েছে যেখানে অন্যান্ন মোবাইল কোম্পানি গুলোর দুই উপজেলায় প্রায় শতাধিক রি-রেজিস্ট্রেশন সেন্টার রয়েছে। সিম রি-রেজিস্ট্রেশনের আর মাত্র কয়েক দিন বাকি আছে, তাই টেলিটক কর্মকর্তদের কাছে গ্রাহকরা দাবি করেছেন যে খুব দ্রুত দেশের সকল নেটওয়ার্ক কভারেজ ভুক্ত ইউনিয়ানে  কমপক্ষে একটি করে টেলিটক রি-রেজিস্ট্রেশন আউটলেট খোলা আথবা ভ্রাম্যমান সিম রি-রেজিস্ট্রেশনের পদ্ধতির ব্যাবস্থা করার অনুরোধ করেছেন না হলে তাদের টেলিটক সিমটি স্থায়ীভাবে বন্ধ হয়ে যাবে।###