ট্রাম্প তার দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন : উ. কোরিয়া


236 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ট্রাম্প তার দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন : উ. কোরিয়া
সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৭ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি ইয়ং হো।

সোমবার নিউইয়র্কে তিনি এ অভিযোগ করেন বলে বিবিসি ও সিএনএন এর খবরে বলা হয়। একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধেও যুদ্ধ ঘোষণা করেছে বলে দাবি করেন রি ইয়ং হো।

তিনি বলেন, গত সপ্তাহে ট্রাম্প দাবি করেন আমাদের নেতৃত্ব দীর্ঘস্থায়ী হবে না এবং আমাদের দেশের বিরুদ্ধে তিনি যুদ্ধ ঘোষণা করেন।

উত্তর কোরিয়ার এ মুখপাত্র আরো বলেন, যেহেতু যুক্তরাষ্ট্র আমাদের দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে, সেহেতু আত্মরক্ষার জন্য আমাদের জবাব দেওয়ার অধিকার আছে। সুতরাং যখন যুক্তরাষ্ট্রের বোমারু বিমান আমাদের দেশের আকাশ সীমার মধ্যে আসবে, তখন তা ভূপাতিত করা হবে।

এদিকে, প্রেসিডেন্টের দাফতরিক ভবন হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব সারাহ স্যান্ডার্স সোমবার বলেন, যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেনি। যুদ্ধের দাবি হাস্যকর।

উত্তর কোরিয়ার মার্কিন বিমান ভূপাতিত করার হুমকির বিষয়ে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক জলসীমায় অন্য কোনো দেশের বিমান ভূপাতিত করা কখনো ঠিক নয়। সংশ্লিষ্ট এলাকায় সুরক্ষা নিশ্চিত করতে প্রশাসনিক পরিকল্পনা অব্যাহত থাকবে।

জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও একের পর এক পারণামকি ও ক্ষেপণাস্ত্র পারীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে উ. কোরিয়া। যা নিয়ে বরবরই উদ্বিগ্ন যুক্তরাষ্ট্র। এতে চীন এবং জাপানও শঙ্কিত। এ নিয়ে ওয়াশিংটন প্রায়ই পিয়ংইয়ংকে সতর্ক করে দেয়। তবে পরিস্থিতির কোনো পরিবর্তন হয় না, বরং আরো ঘোলাটে হয়।

সম্প্রতি জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের ভাষণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উত্তর কোরিয়া উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। সেটাকে ‘ঘেউ-ঘেউ করা কুকুরের চিৎকার’ বলে অভিহিত করেছেন উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও কূটনীতিক রি ইয়ং হো। এতে দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা অরো ছড়িয়ে পড়ে। যা নিয়ে এখন ট্রাম্প ও কিমের মধ্যে চলছে বাকযুদ্ধ ও কাদা ছোড়াছুড়ি।