টয়লেটে বসে গেম খেলার সময় যুবকের পশ্চাদ্দেশে সাপের দংশন


139 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
টয়লেটে বসে গেম খেলার সময় যুবকের পশ্চাদ্দেশে সাপের দংশন
মে ২৭, ২০২২ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

মােবাইলে গেম খেলার প্রতি আসক্তি দিন দিন বেড়েই চলেছে। এ থেকে বাদ যাচ্ছেন না শিশু থেকে শুরু করে কিশাের-কিশােরী, তরুণ-তরুণী, যুবক-যুবতীরা। সেই আসক্তি মেটাতে তারা বাসাবাড়ি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কর্মক্ষেত্র এমনকি টয়লেটে বসে মােবাইলে গেম খেলেন।

সম্প্রতি টয়লেটে বসে মোবাইলে গেম খেলার সময় এক যুবকের জীবনে ঘটে গেছে ভয়াবহ এক দুর্ঘটনা। টয়লেটে বসে মােবাইলে গেম খেলার সময় ওই যুবকের পশ্চাদ্দেশে দংশন করেছে সাপ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তবে চলতি বছরের মার্চে ঘটনাটি ঘটলেও সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে এক টুইট বার্তায় এ ঘটনা জানান সাবরি তাজালি নামে ওই মালয়েশিয়ান যুবক।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানা যায়, ঘটনাটি ঘটেছে মালয়েশিয়ায়। দেশটির ২৮ বছর বয়সী এক যুবক টয়লেটে বসে মোবাইলে গেম খেলার সময় একটি সাপ তার পশ্চাদ্দেশে দংশন করেছে।

এদিকে নিউজ উইকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছরের মার্চে মালয়েশিয়ার সাবরি তাজালি নামের ওই যুবক নিজ বাসার টয়লেটে বসে ফোনে ভিডিও গেম খেলছিলেন। তখন সাপ তাঁকে দংশন করে। এর তিনি দুই সপ্তাহ পরে জানতে পারেন, সাপটি তার নিতম্বে দাঁতের টুকরো রেখে গেছে।

সাবরি তাজালি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, দুই সপ্তাহ পর আমি ক্ষতস্থানটি পরীক্ষা করে দেখি সাপের অর্ধেক দাঁত তখনও সেখানে রয়ে গেছে। সম্ভবত আমি সাপটিকে জোরে আঘাত দিয়েছিলাম বলে এটি ভেঙে গেছে।

এর আগে নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে এ অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন সাবরি তাজালি। এ ঘটনাকে একটি দুর্ভাগ্যজনক মুহূর্ত হিসেবে বর্ণনা করে তিনি জানান, ঘটনাটি ঘটেছিল গত মার্চ মাসে।

তাজালি জানান, তিনি প্রায়ই টয়লেট ব্যবহার করার সময় মোবাইলে ১৫ মিনিট গেম খেলেন। গত ২৮ মার্চও তিনি গেম খেলছিলেন। হঠাৎ তিনি হতবাক হয়ে দেখেন একটি সাপ তাঁর নিতম্বে কামড় দিয়েছে। আতঙ্কিত হয়ে তিনি সাপটিকে টেনে নিয়ে যান এবং বাথরুমের দরজা ভেঙে বেরিয়ে যান। তবে, সাবরি তাজালির ভাগ্য ভালো যে, সাপটি বিষধর ছিল না।