ডিসিদের কাছে বন ও পরিবেশ রক্ষায় সহযোগিতা চাইল মন্ত্রণালয়


86 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ডিসিদের কাছে বন ও পরিবেশ রক্ষায় সহযোগিতা চাইল মন্ত্রণালয়
জানুয়ারি ২৫, ২০২৩ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

বন ও পরিবেশ রক্ষায় জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) সহযোগিতা চেয়েছে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়। ডিসি সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন বুধবার ব্রিফিংয়ে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন পরিবেশ টিলা ও মাটি কাটা রোধ এবং অবৈধ ইট ভাটা বন্ধে জেলা প্রশাসকদের সহযোগিতা চান। অন্যদিকে পরিবেশ অফিস না থাকা ১৪ জেলার ডিসিরা চেয়েছেন অফিস ও জনবল।

জেলা প্রশাসক সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন বুধবার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ডিসিদের সেশনের পর সাংবাদিকদের এসব কথা জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘আমাদের মন্ত্রণালয়ে, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে ডিসি সাহেবদের অনেক দায়িত্ব। আমাদের টিলা কাটা, বন উজাড়, গাছ কাটা, মাটি কাটা, অবৈধ ইট ভাটা পলিথিন-প্লাস্টিক, বন্য প্রাণী-পাখি নিধন এগুলো পরিবেশের ক্ষতি করছে। এগুলো বন্ধে এবং আমাদের পরিবেশ প্রতিবেশ সুরক্ষার জন্য আমাদের আইন অনুযায়ী তারা যাতে আমাদের মন্ত্রণালয়ে সহযোগিতা করেন, সেজন্য আমরা তাদের বলেছি। তারা সহযোগিতা করবেন বলে আমাদের কথা দিয়েছেন। আমরাও তাদের সরকারি দায়িত্ব ও করণীয়গুলো তাদের জানিয়েছি।’

জেলা প্রশাসকদের পক্ষ থেকে কোনো দাবি বা প্রস্তাব ছিল কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘তারা অনেক কিছু জানতে চেয়েছেন। অনেক জায়গায় আমাদের পরিবেশের অফিস নেই। বাংলাদেশের ৬৪ জেলার ৫০টিতে অফিস আছে, ১৪টিতে এখনও হয়নি। তারা অফিস ও জনবল চেয়েছেন। এ ব্যাপারে আমরা তাদের আশ্বস্ত করেছি, বাকি ১৪টি জেলায় আমরা পরিবেশের অফিস করব এবং জনবল নিয়োগ দেব।’

অবৈধ ইটভাটা বন্ধে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে জানিয়ে শাহাব উদ্দিন বলেন, ‘লাইসেন্সবিহীন যেসব ইটভাটা আছে, সেগুলো বন্ধের জন্য আমরা তাদের তৎপর হতে বলেছি।’