ডুমুরিয়া সংবাদ ॥ চুকনগরে এক ব্যক্তির জমি দখল করে নিয়েছে তার প্রতিবেশী


451 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ডুমুরিয়া সংবাদ ॥ চুকনগরে এক ব্যক্তির জমি দখল করে নিয়েছে তার প্রতিবেশী
সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৫ খুলনা বিভাগ
Print Friendly, PDF & Email

গাজী আব্দুল কুদ্দুস, ডুমুরিয়া :
ডুমুরিয়ায় চুকনগরে এক ব্যক্তির ক্রয়কৃত জমি গায়ের জোরে দখল করে নিয়েছে তার প্রতিবেশী প্রতিপক্ষরা। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী ব্যক্তি তার ও পরিবারের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে এবং ক্রয়কৃত জমি ফিরে পাওয়ার আশায় ডুমুরিয়া থানায় একটি সাধারণ ডাইরী করেছেন।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় ডুমুরিয়া উপজেলার বরাতিয়া গ্রামের আনন্দ দে তার পিতা সুনীল দের কাছ থেকে কুলবাড়িয়া-বরাতিয়া মৌজায় জেএল নং-৮৯,দাগ নং-৩৯০৭,৩৯০৮ থেকে ১২ শতক জমি ক্রয় করে। এ ১২ শতক জমির মধ্যে থেকে জমি বিক্রয়ের আগে সুনীল দে ১শতক জমি এলাকার একটি মন্দির নির্মানের জন্য দান করে যান।
এ হিসাবে ১শতক জমি বাদ দিলে ১১শতক জমির মালিক থাকেন তিনি। কিন্তু বর্তমানে তার প্রতিবেশী প্রতিপক্ষ বিরেন্দ্রনাথ দে‘র পুত্র চিত্তরজ্ঞন দে, নরেন্দনাথ দে‘র পুত্র গোকুর দে, খগেন দে‘র পুত্র নারায়ণ দে এবং বৈদ্যনাথ দে‘র পুত্র অসীত দে এর যোগসাজলে জোর পূর্বক তার কাছ থেকে আরও ২শতক জমি শরিক মূলে সেটেলমেন্ট অফিস থেকে মন্দিরের নামে করে নিয়েছে।
জমিটি নেয়ার সময় তারা বলেছিল যে তোমাকে অন্য জমি থেকে ২শতক জমি দেয়া হবে। কিন্তুু দীর্ঘ ৮/৯ বছর অতিবাহিত হলেও প্রতিপক্ষরা শক্তিশালী হওয়ার কারণে আজও আনন্দকে ২শতক জমি অন্য স্থান থেকে দেননি। এ নিয়ে অনেক ঝগড়া বিবাদও হয়েছে। এ ঘটনার জের ধরে গত ২০০৬ সালের ৩০ জুলাই পতিপক্ষরা আনন্দ ও তার স্ত্রীকে মেরে গুরুতর আহত করেছিল। এ নিয়ে স্থানীয় সাংবাদিকরা “ডুমুরিয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় গৃহবধু আহত, শিরোনামে কয়েকটি পত্রিকায় সংবাদও প্রকাশিত করেছিল।
তাছাড়া বর্তমানে তার বাড়ির আঙ্গিনায় লাগানো নাককেল গাছ থেকে সময়ে অসময়ে গায়ের জোরে নারকেল গুলো পেড়ে নিচ্ছে প্রতিপক্ষরা। এ ব্যাপারটি নিয়ে তাদের সাথে কথা বলতে গেলে বিভিন্ন সময়ে আনন্দ ও তার পরিবারকে গালিগালাজ, ভয়ভীতি সহ অনেক সময় মারধরও করে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী নিরুপায় হয়ে ডুমুরিয়া থানায় একটি সাধারণ ডাইরী করেছেন। জানতে চাইলে আনন্দ দে বলেন শরিক মূলে তারা আমার কাছ থেকে মন্দির নির্মানের জন্য ২শতক জমি নিয়েছিল। তারা বলেছিল অন্য জমি থেকে তোমাকে ২শতক জমি দিয়ে দিব। কিন্তু আজ ১০টি বছর পার হয়ে গেলেও আমার প্রাপ্য ২শতক জমি তারা দিচ্ছে না। এ ব্যাপারে গোকুল দে বলেন, আমি অনেক আগেই মনিন্দের সকল ঝামেলা থেকে সরে এসেছি। আমি এখন মন্দিরেও যায় না। এ ব্যাপারে বাসুদেব দে বলেন, আপনারা আনন্দকে নিয়ে আমাদের সাথে একটা বসার দিন ধায্য করেন। আনন্দ দে যদি আমাদের কাছে জমি পায় তাহলে আমরা তার জমি বুঝে দেব।
##

ডুমুরিয়ার গাছ বিতরণ

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি :
ডুমুরিয়ায় মরহুম ডাঃ কামাল উদ্দিন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে ২টি বিদ্যালয়ে কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে গাছ বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার সকাল ১০ টায় দক্ষিন গোবিন্দকাটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রত্যেক শ্রেণীর কৃতি ছাত্র-ছত্রীদের মাঝে এ গাছ বিতরণ করা হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার, আলী মুনছুর, বিশ্বজিৎ কুমার, তহমিনা পারভীন,জেসমিন সুলতানা,মাসুদুর রহমান প্রমুখ। পরে চাকুন্দিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গাছ বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় ম্যানেজিৎ কমিটির সহ-সভাপতি গাজী শামীম হোসেন মিঠু,প্রধান শিক্ষিকা লতিকা রানী রায়,আব্দুল রাজ্জাক,শেখ খলিলুর রহমান,সেলিনা হক প্রমুখ।