তালার সাংস্কৃতিক গুরু ইয়াছিন হোসেন আর নেই


470 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালার সাংস্কৃতিক গুরু ইয়াছিন হোসেন আর নেই
সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান ::
তালা শিল্পকলা অ্যাকাডেমি সহ একাধিক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা, সঙ্গীত শিক্ষক, সুরকার, গীতিকার, নাট্যকার ও অভিনেতা এবং মুক্তিযোদ্ধা ওস্তাদ মো. ইয়াছিন হোসেন (৭০) আর নেই। ঘাতক ব্যধি ক্যান্সারের কাছে হার মেনে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে তিনি মৃত্যুবরন করেছেন (ইন্না লিল্লাহি……রাজেউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ১ পুত্র, ২ কন্যা সহ অসংখ্যা আত্মিয় স্বজন, ভক্ত ও গুনগ্রাহি রেখে গেছেন। ওস্তাদ ইয়াছিন হোসেন এর হাত ধরে ক্ষুদে গানরাজ রানার সহ একাধিক শিল্পি জাতীয় ও স্থানীয় ভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।
মরহুমের পুত্র রাজু আহম্মেদ জানান, গলার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ওস্তাদ ইয়াছিন হোসেন অর্থাভাবে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা করাতে পারেননি। যে কারনে সম্প্রতি তিনি গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়েন এবং শুক্রবার সন্ধ্যায় শ্রীমন্তকাঠি গ্রামের নিজ বাড়িতে তাঁর মৃত্যু হয়। শনিবার সকাল ১১টার দিকে শ্রীমন্তকাঠি গ্রামে জানাযা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।
উল্লেখ্য, ওস্তাদ ইয়াছিন হোসেন ১৯৯০ সালে বাংলাদেশ শিল্পকলা অ্যাকাডেমি থেকে কন্ঠ সঙ্গিতে উচ্চতর প্রশিক্ষন গ্রহন করেন এবং ২০১৬ সালে বাংলাদেশ শিল্পকলা অ্যাকাডেমির পদক প্রাপ্ত হন। এ পর্যন্ত তিনি শতাধিক গান রচনা ও সুরদান সহ ১৯টি নাটক রচনা করেছেন। তাঁর নেতৃত্বে তালা শিল্পকলা অ্যাকাডেমি পরিচালিত হবার সময়টি ছিল তালার সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সোনালী যুগ! রাস্তা থেকে তুলে এনে চ্যানেল আই এর ক্ষুদে গানরাজ রানাকে তিনি আবিস্কার করেন।
এদিকে ওস্তাদ ইয়াছিন হোসেন’র মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা এবং মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে বিবৃতি প্রদান করেছেন, তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার, তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরীন, তালা মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুর রহমান, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মহা বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এনামুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মাষ্টার এম. মইনুল ইসলাম, তালা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মফিজ উদ্দীন, তালা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি মীর জাকির হোসেন ও সাধারন সম্পাদক বি. এম. জুলফিকার রায়হান প্রমুখ।

###