তালায় এক নারীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা


413 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় এক নারীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা
মে ২৬, ২০১৮ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email
  • তালায় দূর্বৃত্ত আমজাদ গংদের সিরিয়াল হামলায় এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়েছে

বি.এম জুলফিকার রায়হান ::
তালার জাতপুর গ্রামের দূর্বৃত্ত আমজাদ হোসেন ও তার স্ত্রীর হোসনেয়ারা বেগম গংদের ধারাবাহিক হামলায় এলাকাজুড়ে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। তাদের একের পর হামলা থেকে নারী, পুরুষ ও শিশু-বৃদ্ধ কেউ বাদ পড়ছেনা। কিন্তু অজ্ঞাত কারনে পুলিশ প্রশাসন আমজাদ হোসেন গংদের বিরুদ্ধে কার্যকর কোনও ব্যবস্থা গ্রহন না করায় সাধারন মানুষ আতংকের মধ্যে দিনাতিপাত করছে।
সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার জাতপুর গ্রামের মৃত. ইসমাইল বিশ্বাস এর পুত্র আমজাদ হোসেন ও তার স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম এর নেতৃত্বে দূর্বত্তরা বছরের পর বছর দরে গ্রামের সহজ সরল ও দরিদ্র ব্যক্তিদের জমি ও সম্পদ জোর দখল করে যাচ্ছে। তাদের জোর দখলে একাধিক ব্যক্তি নিঃস্ব হয়ে পথে পথে ঘুরছে। বুক্তভোগীদের মধ্যে কেহ আমজাদ গংদের অপকর্মে বাঁধা দিলে তাদের উপর হামলা চালানো হয়। এমনভাবে গ্রামের একাধিক নিরিহ ব্যক্তি হামলার শিকার হয়েছে। বর্তমানে তাদের হামলার ঘটনা নিয়োমিত ব্যপার হয়ে দাড়িয়েছে। প্রতি মাসে দূর্বৃত্ত আমজাদ হোসেন ও হোসনেয়ারা বেগম গং কোনও না কোনও নিরিহ ব্যক্তির উপর হামলা চালাচ্ছে। সর্বশেষ গত মাসের ১৯ তারিখে আমজাদ ও তার দূর্ধর্ষ স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম এর নেতৃত্বে জাতপুর গ্রামের ভূমিহীন রাজিয়া বেগমকে এবং তার পরিবারের আরো ৩জন মহিল কে ধারালো অস্ত্র, লোহার রড ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এঘটনায় রাজিয়া বেগম বাদী হয়ে হামলাকারেিদর বিরুদ্ধে তালা থানায় একটি মামলা করেন। কিন্তু মামলা হবার পরও পুলিশ কার্যকরি ভূমিকা না রাখায় অতি উৎসাহিত হয়ে দূর্বৃত্ত আমজাদ হোসেন ও তার স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম এর নেতৃত্বে গ্রামের এক নিরিহ পরিবারের উপর আবারও হামলা চালানো হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে প্রতিবেশি মতিয়ার বিশ্বাসের বাড়িতে যেয়ে তাদের উপর হামলা চালায়।
মতিয়ার বিশ্বাস জানান, তাদের পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া ভিটে বাড়ির জমি শুক্রবার দুপরে আকষ্মিক জোর দখলের চেষ্টা চালায় আমজাদ হোসেন বিশ্বাস, তার স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম সহ একদল দূর্বৃত্ত। এসময় বাঁধা দিলে দূর্বৃত্তরা লোহার রড, হাতুড়ি, ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করে। হামলায় মতিয়ার বিশ্বাস সহ তাঁর ছেলে মনিরুজ্জামানকে পিটিয়ে আহত করে। এছাড়া মতিয়ার বিশ্বাসের মেয়ে মুক্তা বেগম কুপিয়ে হত্যা করার চেষ্টা করে আমজাদ হোসেন গংরা। আহতদের মধ্যে মনিরুজ্জামান ও তার বোন গুরুতর আহত মুক্তা বেগমকে এদিনই তালা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘাটনায় তালা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

##