তালায় এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ


299 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ
জানুয়ারি ২৪, ২০১৬ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

তালা প্রতিনিধি :
বিয়ের প্রলভন দেখিয়ে তালা উপজেলার হাজরাকাঠি গ্রামের এক স্কুল পড়–য়া ছাত্রী (১৫) ধারাবাহিক ধর্ষন করা হয়েছে।

একই গ্রামের লম্পট মামুন সানা ওই ছাত্রীকে ১ সপ্তাহ ধরে ধর্ষন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষনের শিকার স্কুল ছাত্রী তালার বারুইহাটি শহীদ জিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে চলতি বছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করবে।

স্কুল ছাত্রী জানান, হাজরাকাঠি গ্রামের মৃত হাজের সানার পুত্র মামুন সানার সাথে তার ৩ বছর পূর্বে প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে ওটে। মামুন সানা ধর্নাঢ্য পরিবারের সন্তান এবং ছাত্রীটি দরিদ্র পরিবারের সন্তান। এই কারনে তাদের বিয়েতে উভয় পরিবার রাজি হবে নাÑ এই অযুহাতে ঢাকায় যেয়ে বিয়ে করার প্রলভন দেখিয়ে মামুন প্রতারনা করে ছাত্রীটি গত ২ জানুয়ারী ঢাকায় নিয়ে যায়।

কিন্তু প্রতারন ও লম্পট মামুন ওই ছাত্রীকে বিয়ে না করে আটকিয়ে রেখে ১ সপ্তাহ ধরে জোরপূর্বক ধারাবাহিক ধর্ষন করে। এবিষয়টি ছাত্রীর পরিবার জানতে পারার পর তালা থানায় মামলা দায়েরের চেষ্টা করে। কিন্তু মামুনের ভাই বারিক সানা ও ওদুদ সানা ছাত্রীটিকে উদ্ধার করে আনবে এবং পারিবারিক ভাবে বিয়ে দেবার আশ্বাস দিয়ে মামলা করা থেকে বিরত রাখে।

এবিষয়ে ছাত্রীর চাচা জানান, চাঁপের মুখে গত ১৮ জানুয়ারী ভোরে বারিক ও ওদুদ ঢাকা থেকে তাদের ভাই মামুন এবং প্রতারনার শিকার ছাত্রীকে তালায় নিয়ে আসে। সেখান থেকে তারা মামুনকে নিয়ে বাড়ি যায় এবং ছাত্রীকে তালায় ফেলে রেখে যায়।
এরপর থেকে মামুন পলাতক এবং তার ভাই বারিক ও  ওদুদ স্কুল ছাত্রী এবং তার পরিবারকে নানাবিধ হুমকি দিয়ে ঘটনাটি ধামাচাঁপা দেবার চেষ্টা করছে। এনিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে শালিস সভা করে সমস্যার সমাধান চেষ্টা ব্যার্থ হয়েছে। যে কারনে রোববার স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে তালা থানায় মামুন ও তাঁর ২ ভাই সহ ধর্ষনের ২ জন সহযোগীর নামে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।