তালায় কবি সিকান্দার আবু জাফর মেলায় চলছে নগ্ন নৃত্য আর রমরমা জুয়ার আসর


841 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় কবি সিকান্দার আবু জাফর মেলায় চলছে নগ্ন নৃত্য আর রমরমা জুয়ার আসর
এপ্রিল ১, ২০১৬ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কামরুজ্জামান মোড়ল, পাটকেলঘাটা :
সাতক্ষীরার তালায় কবি সিকান্দার আবু জাফর মেলার নামে চলছে নগ্ন নৃত্য আর খোলামেলা জুয়ার আসর। আর এ সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করছে আমজাদ হোসেন নামের এক আলোচিত জুয়াড়ী। ফলে উঠতি তরুণ সমাজ চরম বিপথগামী হচ্ছে। গত ২৪ মার্চ তালার তেঁতুলিয়া গ্রামে কবির ৯৭তম জন্মবার্ষিকীতে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মহিউদ্দীন মেলার উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের পরদিন হতে লটারী আর পুতুল নাচের নামে চলছে জীবন্ত পুতুলের নগ্ন নৃত্য আর খোলামেলা জুয়ার আসর। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭ টা হতে রাত ১০ টা পর্যন্ত মেলা প্রাঙ্গনে সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে বাংলা সাহিত্যের কিংবদন্তী কবি সিকান্দার আবু জাফরের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মেলা চললেও নেই কোন  লাইব্রেরী, স্মৃতি সংগ্রহশালা। ব্যক্তিস্বার্থ হাসিল করতে কতিপয় অপরাধপ্রবণ সমাজবিরোধীরা সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনকে ভুল বুঝিয়ে মেলার নামে পকেট ভারী করছে। মেলা প্রাঙ্গনে ঝুপড়ি আর খুপড়ি তৈরী করে প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর ৩ টি পুতুল নাচের নামে চালাচ্ছে যুবতী মেয়েদের দিয়ে নগ্ন নৃত্য। তার পাশেই চলছে চরকায় ১ শ টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকার জুয়াবোর্ড। অপরদিকে ২০ টাকার লটারীতে গাড়ি, ফার্ণিচার, অলংকার বহুবিধ প্রলোভনে জনসাধারণের পকেট খালি করছে মেলা আয়োজনকারী অপরাধচক্রের শীর্ষে থাকা জুয়াড়ীরা। মেলা প্রাঙ্গনে লটারী, জুয়া খেলা, চরকা, বাইলা, যাদু আর নারীদের শো করে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা। যার ফলে উঠতি তরুণসমাজ সহ অপরাধীরা মেলা প্রাঙ্গন বেছে নিয়েছে নিরাপদ আশ্রয়স্থল। মেলা প্রাঙ্গনের চারিপাশে গহিন বাগান থাকায় গাজা সেবন করছে মাদকসেবীরা। এ বিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মহিউদ্দীন জানিয়েছেন নগ্ন নৃত্য আর জুয়ার বিষয় জানা নেই। তবে এ ধরনের কর্মকান্ড চললে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এছাড়া তিনি আরও জানান, আগামী বছর হতে সিকান্দার আবু জাফর মেলা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জাতীয়ভাবে পালিত হবে। নগ্ন নৃত্য আর খোলামেলা জুয়ার বিষয়ে সাতক্ষীরা সহকারী পুলিশ সুপার মোদাচ্ছের আলী জানিয়েছেন, অপরাধপ্রবণ কোন কর্মকান্ড মেলায় চললে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ বিষয়ে তালা থানা অফিসার ইনচার্জ সগীর মিয়া এর কাছে পুলিশের প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ সহযোগীতায় আবু জাফর মেলায় নগ্ন নৃত্য আর জুয়া চলছে জানতে চাইলে তিনি জানান ছুটিতে ছিলেন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। অপরদিকে এ রিপোর্ট লেখার সময় তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান জানান অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলেই অবস্থান করছেন। প্রয়োজনে তিনি মেলার সুষ্ঠু পরিবেশ ফেরাতে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন। এদিকে বহুল আলোচিত জুয়াড়ী মেলার মাঠ মালিক আমজাদ হোসেন নগ্ন নৃত্য আর জুয়ার কথা অকপটে স্বীকার করে দম্ভক্তিতে বলেন সাংবাদিকদের লেখনীতে কিছুই হয় না।