তালায় খাসজমি অবৈধ দখল নিতে ভূমিদস্যুদের হামলা ও হুমকিতে ভূমিহীন কৃষকরা আতংকিত


354 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় খাসজমি অবৈধ দখল নিতে ভূমিদস্যুদের হামলা ও হুমকিতে ভূমিহীন কৃষকরা আতংকিত
নভেম্বর ১৮, ২০১৬ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান :
তালা উপজেলার বাউখোলা গ্রামে ভূমিহীন কৃষকদের ১০/১২ বছর ভোগ দখলীয় থাকা সরকারি খাস জমি অবৈধ ভাবে দখলে নিতে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী কতিপয় ভূমিদস্যুরা।

ভূমিদস্যুদের একের পর এক হামলা ও হুমকিতে আতংকিত হয়ে পড়েছে হতদরিদ্র ভূমিহীন কৃষকরা। যদিও হুমকি ও জোর দখল চেষ্টা বন্ধ করতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক সুভাষ চন্দ্র সেন ভূমিদস্যুদের নিষেধ করলেও তা মানছেন না ভূমিদস্যুরা।

ভূমিহীন একাধিক কৃষক ভয়ের কারনে নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, উপজেলার বাউখোলা মৌজার বাউখোলা গ্রামের কপোতাক্ষ নদ সংলগ্ন সরকারের ১ নং খাস খতিয়ান ভুক্ত ৫৮০/৬১৪ দাগের প্রায় ২৫ বিঘা জমি স্থানীয় ২০/২২ জন ভূমিহীন হতদরিদ্র কৃষকরা ১০/১২ বছর ধরে শান্তিপূর্ন ভোগ দখলিকার অবস্থায় চাষাবাদ করে আসছে।

ভূমিহীনরা উক্ত জমি বিগত ২০০৫ সালে সরকারের কাছ থেকে বিধি মোতাবেক ১ সনা ইজারা গ্রহন পূর্বক জমিতে চাষাবাদ শুরু করে। কিন্ত পরবর্তিতে কপোতাক্ষ নদ ভরাটী উক্ত খাস জমি ইজারা প্রদান বন্ধ হলে ভূমিহীনরা ইজারা গ্রহন করতে পারেনি। তারপরও সেখানে ভূমিহীন কৃষকরা চাষাবাদ করে নিজেদের পরিবারের জীবিকা নির্বাহ করে আসছে।

ভূমিহীনরা অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘ ১০/১২ বছর ধরে সরকারি উক্ত খাস জমিতে বিভিন্ন ফসল চাষাবাদ করে আসলেও সম্প্রতি এলাকার প্রভাবশালী ভূমিদস্যু মৃত. মোহাম্মাদ হোসেনের পুত্র আলাউদ্দীন শেখ, মৃত. জামির শেখের পুত্র হায়দার শেখ, দিরাজ তুল্য

কাগজীর পুত্র ইদ্রিস আলী এবং আয়ুব আলী, লুৎফর রহমানের পুত্র মফিজুল রহমান, বজলু শেখের পুত্র শফিকুল রহমান শেখ, জিল্লুর রহমানের পুত্র জিয়াউল রহমান বকুল ও জাফের শেখ এর পুত্র আকবর শেখ গং সংঘবদ্ধ ভাবে সরকারি খাস জমি জোরপূর্বক অবৈধ দখল করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ভূমি দস্যুরা ইতোমধ্যে সকল জমি থেকে ভূমিহীনদের উচ্ছেদ করতে একের পর এক হামলা ও হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

বুধবার সকালে ভূমিদস্যুদের হামলায় হতদরিদ্র ভূমিহীন বাবলু শেখের স্ত্রী তাহেরা বেগম (৪৫) গুরুতর আহত হলে তাকে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স’এ ভর্তি করা হয়। ভূমি দস্যুদের একের পর এক হামলা ও হুমকির ঘটনায় স্থানীয় ইসলামকাটী ইউনিয়ন

পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক সুভাষ চন্দ্র সেন, স্থানীয় ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. আল আমীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উক্ত জমি চাষাবাদের স্বার্থে ভূমিহীন কৃষকদের দখলীয় জমিতে চাষাবাদ কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে বলেছেন।

এছাড়া একই সময় উক্ত জমি জোর দখল না করার জন্য তিনি অবৈধ ভাবে দখলের চেষ্টাকারীদের নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু সেই নির্দেশ অমান্য করে ভূমি দস্যুরা বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে খাস জমি জোর দখল নিতে অপচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে বলে ভূমিহীন কৃষকরা জানিয়েছেন।

এতে করে এলাকায় ভূমিহীন কৃষক এবং প্রভাবশালী ভূমিদস্যুদের মধ্যে যে কোনও সময় রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষ ঘটার আশংকা সৃষ্টি হয়েছে। যে কারনে ঘটনার বিষয়ে অতি দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উর্দ্ধতন প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন শান্তিপ্রিয় এলাকাবাসী।
##