তালায় গৃহবধূ শিখা রানী হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার-৩


232 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় গৃহবধূ শিখা রানী হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার-৩
জানুয়ারি ৬, ২০২২ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান ::

সাতক্ষীরার তালায় গৃহবধু শিখা রানী হত্যা মামলায় তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার ভোরে তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার বলফিল্ড মোড় এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, তালা সদর ইউনিয়নের আটারই গ্রামের নিতের স্বামী গোবিন্দ ঋষি (৩০), বাবা অনিল ঋষি (৬০) ও তার ভাই মান্দার ঋষি (২০)।
র‌্যাব সাতক্ষীরার কোম্পানী অধিনায়ক মো. ইশতিয়াক হোসাইন জানান, গত ৫ বছর পূর্বে তালা উপজেলার আমানুল্যাহপুর গ্রামের সূর্যকান্ত ঋষির কন্যা শিখা রানী দাসের সাথে তালা সদরের আটারই গ্রামের অনিল দাসের পুত্র গোবিন্দ দাসের বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই গোবিন্দ ঋষি যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে প্রায়ই মারপিট করতো। বিভিন্ন সময় স্থানীয়ভাবে শালিশী বৈঠক হলেও কোন সমাধান হয়নি। একপর্যায়ে গত ১ জানুয়ারী স্বামী গোবিন্দ ঋষিসহ তার পরিবারের লোকজন তার স্ত্রীকে মারপিট করে মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর গলায় রশ্নি দিয়ে ঝুঁলিয়ে দিয়ে আতœহত্যা বলে প্রচার দেয়। এরপর তারা বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।
তিনি আরো জানান, এই ঘটনায় ভিকটিমের বাবা সূর্যকান্ত ঋুষি বাদী হয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে তালা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ২। তারিখ ০১.০১.২২ ইং। মামলা দায়েরর পর থেকে র‌্যাব ছায়া তদন্ত শুরু করে। এক পর্যায়ে গোপন সংবাদে ভিত্তিতে আসামীদের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর অতাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের তালা থানায় হস্তান্তরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

#