তালায় চুরির অপবাদে শিশু নির্যাতন করা ইউপি সদস্য আমিনুর গ্রেফতার


211 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় চুরির অপবাদে শিশু নির্যাতন করা ইউপি সদস্য আমিনুর গ্রেফতার
ডিসেম্বর ৩, ২০২২ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান ::

চুরির অভিযোগে শিশুকে ব্যপক নির্যাতনের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় তালার তেঁতুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আমিনুর রহমান মোড়ল গ্রেফতার হয়েছে। শনিবার (৩ ডিসেম্বর) বেলা ৩টার দিকে সাতক্ষীরার লেক ভিউ এলাকায় গোপন সংবাদের ভত্তিতে অভিযান চালিয়ে তালা থানা পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে। এরআগে শুক্রবার রাতে নির্যাতিত ওই শিশুর পিতা আজহারুল ইসলাম বাদী হয়ে তালা থানায় ইউপি সদস্য আমিনুর রহমানসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা (২/২২) দায়ের করেন। গ্রেপ্তারকৃত আমিনুর রহমান উপজেলার তেঁতুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও হাতবাঁশ গ্রামের আফাজউদ্দিন মোড়লের ছেলে।
তালা থানার ওসি চৌধুরী রেজাউল করিম বলেন, টাকা চুরির অপবাদে শিশু রমজানকে নির্যাতনের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ইউপি সদস্য আমিনুরকে আজ বিকালে সাতক্ষীরার লেকভিউ এলাকা থেকে ডিবি পুলিশের সহযোগীতায় গ্রেপ্তার করা হয়। পরে ধৃতকে তালা থানায় আনা হয়েছে এবং পলাতক অপর দু’ আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
প্রসঙ্গত, উপজেলার হাতবাস গ্রামের দরিদ্র ভ্যান চালক আজহারুল ইসলাম’র ছেলে রমজান আলী অভয়নগর হাফিজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র। নভেম্বর মাসের ১০ তারিখে ইউপি সদস্য আমিনুর রহমানের বাড়ি থেকে ১ লক্ষ টাকা চুরি হয় বলে দাবী করেন ওই ইউপি সদস্য। গত ৩০ নভেম্বর (বুধবার) রমজান আলী মাদ্রাসা থেকে বাড়ি আসলে তাকে টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে মেম্বর আমিনুর রহমান, তার ভাই শামীম ও মাসুদ ধরে নিয়ে তাদের বাড়িতে আটকিয়ে রেখে অমানুষিক নির্যাতন করে। একপর্যায়ে শিশুটিকে পিটিয়ে “টাকা নিয়েছে” মর্মে স্বীকারোক্তি আদায় করিয়ে নেয়। নির্যাতনের একপর্যায়ে শিশুটি গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়লে স্থানীয়রা অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে তালা হাসপাতালে নিয়ে আসে। এখানে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে প্রেরন করে। শিশু রমজানের শারীরিক অবস্থার এখনও তেমন উন্নতি হয়নি বলে শিশুর পিতা আজহারুল ইসলাম জানিয়েছেন।

#