তালায় ধর্ষণ চেষ্টা মামলার বাদীকে হুমকি দেয়ার অভিযোগ


599 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় ধর্ষণ চেষ্টা মামলার বাদীকে হুমকি দেয়ার অভিযোগ
সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৭ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

তালা প্রতিনিধি ::
তালার লাউতাড়া গ্রামে ধর্ষন চেষ্টা মামলার বাদী ভিকটিম নারী ও তাঁর পরিবারকে দফায় দফায় হুমকি ও হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। মামলা দায়েরের পর পুলিশ আসামীদের গ্রেফতার না করায় এধরনের হুমকি প্রদান ও হামলা চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগে বলা হয়েছে। হামলা ও হুমকি প্রদানের ঘটনায় ভিকটিম নারী হুমকিদাতাদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করেছেন।

উপজেলার লাউতাড়া গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ ভিকটিম নারীর স্বামী জানান, একই গ্রামের আছরোপ খাঁর পুত্র আনিছুর রহমান খাঁ ডুমুরিয়া উপজেলার ঘোষড়া গ্রামের মো. মোকবুল গাজীর মেয়েকে বিয়ে করে। সেই সূত্রে তার শ্যালক মো. কবীর গাজী প্রায়ই বোনের বাড়িতে আসা যাওয়া করে। এরই এক পর্যায়ে লম্পট কবির গাজী লাউতাড়া গ্রামে বোনের শশুর বাড়ির পাশ্ববর্তী ২ সন্তানের জননী এক গৃহবধুকে প্রতিনিয়ত উত্যাক্ত করতে থাকে। এমনকি সুযোগ পেলেই কূ-প্রস্তাব প্রদান করে।

বিষয়টি গৃহবধুর স্বামী জানতে পেরে ঘটনার প্রতিবাদ করে এবং বিভিন্ন ব্যক্তিকে অবহিত করে বিচার দাবী করে। এতে লম্পট কবির গাজী এবং তার বোনাই আনিছুর রহমান ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে গত ১৯ আগষ্ট বাড়িতে ফাঁকা পেয়ে কবির গাজী ও আনিছুর রহমান ওই গৃবধুকে ধর্ষনের চেষ্টা করে। এতে বাঁধা দিলে ওই গৃহবধুকে পিটিয়ে আহত করে। আহত গৃহবধুকে ওই দিন তালা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এঘটনায় গৃহবধু বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দম আইনে তালা থানায় ২ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা (১৯/১৭) দায়ের করেন। গৃববধুর স্বামী জানান, মামলা দায়ের করার পর দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ আসামীদের গ্রেফতার করেনি। যে কারনে আসামীরা এবং তাদের পরিবারের লোকজন মামলা তুলে নিতে প্রতিনিয়ত বাদীকে নানাবিধ হুমকি প্রদান করা সহ হামলা চালাতে থাকে।

একারনে ওই গৃহবধু হুমকিদাতা নুর ইসলাম ও আনিছুর রহমান গংদের বিরুদ্ধে সাতক্ষীরার বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ১০৭ ও ১১৭ (গ) ধারায় একটি পিটিশন মামলা (৯৪৩/১৭) দায়ের করেছেন। এদিকে, মামলা তুলে না নিয়ে দুটি মামলা দায়ের করায় আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে ধর্ষন চেষ্টা মামলার আসামী এবং তাদের লোকজনেরা।

মামলা তুলে নিতে প্রতিনিয়ত হুমকি প্রদান অব্যাহত রাখা হয়েছে। বর্তমানে বাদী এবং তার পরিবারের লোকদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো সহ নানাবিধ ক্ষতি সাধন করতে আসামীরা নানাবিধ চক্রান্ত করছে বলে অভিযোগে বলা হয়েছে। এসব বিষয়ে নিরিহ ভিকটিম পরিবার উর্দ্ধতন পুলিশ প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
##