তালায় পানি কমিটির সংবাদ সম্মেলন


135 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় পানি কমিটির সংবাদ সম্মেলন
আগস্ট ২৩, ২০২০ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান ::

‘কপোতাক্ষ নদের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ প্রকল্প (২য় পর্যায়)’ অনুমোদনের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাতে তালায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার (২৩ আগষ্ট) সকালে উত্তরণ ও পানি কমিটি উদ্যোগে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন তালা উপজেলা পানি কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এম. ময়নুল ইসলাম।
তিনি বলেন, কপোতাক্ষ নদের নাব্যতা বৃদ্ধি ও জলাবদ্ধতা সমস্যার সমাধানকল্পে গত ১৮ আগষ্ট একনেক সভায় ‘কপোতাক্ষ নদের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ প্রকল্প (২য় পর্যায়)’ প্রকল্পটি অনুমোদন দেয়া হয়। ৫৩১ কোটি ৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ৪ বছর মেয়াদী প্রকল্পটির কাজ ২০২০ সালে শুরু হয়ে ২০২৪ সালে শেষ হবে। অনুমোদিত প্রকল্পটিতে কপোতাক্ষ অববাহিকার জলাবদ্ধতা নিরসন কল্পে টিআরএমকে যুক্ত করে কপোতাক্ষ নদ উজান অংশে যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলার তাহেরপুর হতে মনিরামপুর উপজেলার চাকলা ব্রীজ পর্যন্ত ৭৫ কিমি. এবং নি¤œাংশে খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার বোয়ালিয়া হতে কয়রা উপজেলার আমাদী পর্যন্ত ৩০ কিমি. নদী খনন, তীর প্রতিরক্ষা কাজ বাস্তবায়ন, নিষ্কাশন অবকাঠামো নির্মাণ ও মেরামত করা, কপোতাক্ষ নদের দুই তীরে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ মেরামত করা সহ নদের সাথে সংযুক্ত খাল খনন করা কার্যক্রম অন্তর্ভূক্ত রয়েছে। উল্লেখ্য, ইতোমধ্যে সরকার কর্তৃক পলি ব্যবস্থাপনা, টাইডাল প্রিজম বৃদ্ধি ও নিষ্কাশন ক্ষমতা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে ৩৫ বছর মেয়াদী জোয়ার-ভাটা নদী ব্যবস্থাপনা (টিআরএম) কার্যক্রম চালানোর এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। অনুমোদিত প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে প্রকল্প এলাকাভূক্ত যশোর জেলার চৌগাছা, ঝিকরগাছা, মণিরামপুর, কেশবপুর উপজেলা; খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলা; সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া ও তালা উপজেলা এবং ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর ও কোটচাঁদপুর উপজেলার বিশাল অংশ জলাবদ্ধতার কবল থেকে রক্ষাসহ পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনার টেকসই উন্নয়ন হবে। ফলে কৃষি, মৎস্য ও শিল্প উৎপাদন অব্যাহত থাকায় প্রায় ২০ লক্ষ মানুষের আর্থ-সামাজিক অবস্থার বর্তমান ধারা বজায় রাখা সম্ভব হবে।
তিনি আরও বলেন, কপোতাক্ষ নদ খনন প্রকল্প প্রথম পর্যায় বাস্তবায়ন এবং দ্বিতীয় পর্যায় প্রকল্প গ্রহন করার পিছনে কপোতাক্ষ অববাহিকার অধিবাসীদের দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রাম ও পুরোমাত্রায় আবেদন নিবেদনের ইতিহাস রয়েছে। সেই সাথে সাতক্ষীরা-১ (তালা-কলারোয়া) আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ বরাবর যুক্ত থেকেছেন। এজন্য কপোতাক্ষ অববাহিকার মানুষদের পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সংসদ সদস্য অ্যাড. মুস্তফা লুৎল্লøাহকে বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানানো হচ্ছে।

#