তালায় ফেসবুকে ছাত্রীদের ছবি পোষ্ট করে আশ্লিল মন্তব্য করায় কলেজ ছাত্র গ্রেফতার


1029 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় ফেসবুকে ছাত্রীদের ছবি পোষ্ট করে আশ্লিল মন্তব্য করায় কলেজ ছাত্র গ্রেফতার
অক্টোবর ১৩, ২০১৫ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা থেকে :
সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে সহপাঠি ছাত্রীদের ছবি আপলোড করে অশ্লিল মন্তব্য করার অপরাধে সবুজ নামের এক কলেজ ছাত্র আটক হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরার তালা থানা পুলিশ তাকে জেল হাযতে প্রেরন করেছে।

সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার মাঝিয়াড়া গ্রামের আব্দুল গফুর শেখ’র পুত্র জাকারিয়া ইসলাম  সবুজ (১৮) ফেসবুকে একটি পর্ন পেজ তৈরি করে সেখানে তাঁর সহপাঠি ৩০/৩৫জন ছাত্রীর ছবি আপলোড করে। পরে ওই ছবির মধ্যে কয়েকজন ছাত্রীর ছবির সাথে মোবাইল নাম্বার সংযুক্ত করে এবং অশ্লিল মন্তব্য পোস্ট করে। এছাড়া ওই পেজে দেশী ও বিদেশী আরও বহু পর্ন মেয়েদের ছবি আপলোড হয়। ফেসবুকের এই পেজটি ব্যপকভাবে প্রচারিত হয়। এরফলে বখাটে ছেলেরা মোবাইল নাম্বার পেয়ে কলেজ ছাত্রীদের বিভিন্ন সময়ে ফোন করে কূরুচীপূর্ন প্রস্তাব ও অশ্লিল মন্তব্য করা শুরু করে। এতে করে বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়া ছাত্রীরা বিষয়টি কলেজ কর্তৃপক্ষকে জানায়।

গত সোমবার তালা শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মহা বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ঘটনার সত্যতা পান। পরে সবুজকে কলেজ থেকে আটক করে তালা থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়। সবুজ উক্ত কলেজ’র ছাত্র এবং পর্ণ হয়রানীর শিকার ৩০/৩৫জন ছাত্রী একই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী।

তালা থানার ওসি মো. রেজাউল ইসলাম রেজা জানান, এঘটনায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম সরদার নামের এক ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে তালা থানায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ৫৭ (২) ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং : ১০, তাং : ১৩.১০.১৫ ইং।

মঙ্গলবার দুপুরে বখাটে ছাত্র সবুজকে সাতক্ষীরা জেল হাযতে প্রেরন করা হয়েছে। এদিকে, অশ্লিল কর্মকান্ডে জড়িত থাকার দায়ে সবুজকে কলেজ থেকে বহিস্কার করার প্রক্রিয়া চলছে বলে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মহিবুল্লাহ মোড়ল জানিয়েছেন।