তালায় রেকর্ডীয় সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন


134 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় রেকর্ডীয় সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
জুলাই ২৮, ২০২১ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::

সাতক্ষীরার তালায় একাধিক রাষ্ট্রদোহী মামলার আসামী ও জামায়াতের সক্রিয় কর্মী শেখ আমানুর রহমান কর্তৃক জালিয়াতির মাধ্যমে ভুয়া দলিল সৃষ্টি করে কৌশলে ডিগ্রি তৈরির মাধ্যমে রেকর্ডীয় সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল চেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে তালা উপজেলার মাগুরা গ্রামে উক্ত সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন শেখ মহসিন আলীর ছেলে শেখ আব্দুল্লাহ আল-মাসুম।
তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, তালা থানার মাগুরা মৌজায় ১৩৭২, ৩৭৩, ২৩৬৩, ২৩৬৮ দাগে ৩ একর ৫৬ শতক জমির মালিক ছিলেন শেখ আব্দুল গফফার। তার মৃত্যুর পর তার কন্যা শেফালি বেগম তার বাবার সম্পত্তির ওয়ারেশ সূত্রে দখলে থাকা অবস্থায় একই গ্রামের আব্দুল মালেকের নিকট ১ একর ৫৬ শতক জমি বিক্রয় করেন। এরপর আব্দুল মালেকের মৃত্যুর পর তার ওয়ারেশদের নিকট থেকে আমি গত ২০/০১/২০২১ ইং তারিখে ৪২৭ নং কোবালা মূলে ১ একর ১৬ শতক জমি ক্রয় করে উক্ত সম্পত্তি আমাদের নামে ২২৬৩ (২০-২১) নামজারি মূলে প্রদত্ত হইয়া বর্তমান সন পর্যন্ত মালিকদের থেকে দখল বুঝে নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখল করে আসছিলাম। কিন্তু সম্প্রতি একই এলাকার মৃত শেখ আব্দুল গফফারের পুত্র একাধিক নাশকতা মামলার আসামী আমানুর রহমান গত ২৪/০৭/২০১১ ইং তারিখে ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে উক্ত সম্পত্তিতে প্রবেশ করে ঘেরাবেঁড়া ভাংচুর করে। বিষয়টি তালা থানার পুলিশকে অবহিত করলে থানা পুলিশ আমাদের উভয় পক্ষকে শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে নির্দেশ দেন। এরপরও পুলিশের সেই নির্দেশ উপেক্ষা করে আমানুর, তার স্ত্রী মাহফুজা ও পুত্র ইমরানসহ ভাড়াটিয়া লোকজন আমাকে প্রকাশ্যে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজসহ খুন জখমসহ বিভিন্ন হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে যাচ্ছেন। শুধু তাই নয় আমাদেরকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য আমানুর গত ২৪ জুলাই আমাকেসহ এলাকার কিছু ব্যক্তিদের জড়িয়ে মিথ্যা, ভিত্তিহীন সংবাদ সম্মেলন করে আমাদের মান সম্মান ক্ষুন্ন করার অপচেষ্টা চালিয়েছেন।
তিনি আরো বলেন, একাধিক রাষ্ট্রদোহী মামলার আসামী ও জামায়াত কর্মী আমানুর তার পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তি ছাড়াও বেশী সম্পত্তি বিভিন্ন ব্যক্তিদের কাছে বিক্রয় করে দেন। পরসম্পদ লোভী এই আমানুর বর্তমানে জালিয়াতির মাধ্যমে একটি ভূয়া দলিল সৃষ্টি করে আদালতের মাধ্যমে একটি সোলেনামা তৈরি করে আমার ক্রয়কৃত সম্পত্তি দাবি করে আসছেন। অথচ উক্ত সম্পত্তির সকল কাগজপত্র, খাজনা, দাখিলা আমার রয়েছে। শুধু মাত্র ওই সোলোনামার বুনিয়াদে তিনি আমার রেকর্ডীয় সম্পত্তি দখলের পায়তারা চালাচ্ছেন। সংবাদ সম্মেলন থেকে এ সময় শেখ আব্দুল্লাহ আল-মাসুম তার সম্পত্তি রক্ষাসহ একাধিক রাষ্ট্রদোহী মামলার আসামী আমানুরের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রধানমন্ত্রী ও সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

#