তালায় শিশু ধর্ষন ঘটনায় প্রধান আসামী সোহাগ গ্রেফতার


545 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালায় শিশু ধর্ষন ঘটনায় প্রধান আসামী সোহাগ গ্রেফতার
জুন ৪, ২০২০ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান ::

তালার জেয়ালনলতা গ্রামের হতদরিদ্র শিশু (১৬)কে জোরপূর্বক ধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামি সোহাগ সরদার (২৫) কে পুলিশ আটক করেছে। বুধবার রাতে তালা থানা ওসি মেহেদী রাসেল’র নেতৃত্বে উপজেলার মহান্দি এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এসময় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তালা থানার চৌকোস পুলিশ অফিসার প্রিতিশ রায় সহ একদল পুলিশ সাথে ছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত (২৯ মে) শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে তালা সদরের জেয়ালানলতা গ্রামের এক শিশুকে ধর্ষন করে একই এলাকার হায়দার সরদারের লম্পট ছেলে সোহাগ। সে সময় অসুস্থ্য শিশু মেয়েটি তাদের জীর্ণ মাটির ঘরে ঘুমিয়ে ছিল এবং তার পিতা ও মাতা কৃষি শ্রমিকের কাজ করতে মাঠে যায়। ধর্ষনকালে মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন সোহাগকে ধরে ফেলার পর পরিবারের লোকজন এসে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। পরে সালিশে নিষ্পত্তি করার নামে সোহাগের মা ও ফুফুরা হতদরিদ্র পরিবারের ওই মেয়েকে তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে মারপিট করে। ঘটনায় গ্রামের লোকজন ক্ষুব্ধ হয়ে লম্পট সোহাগ ও তার পরিবারের সদস্যদের বিচারের দাবীতে তাদের বাড়ি ২দিন ঘেরাও করে। সেসময় ক্ষতাসীন দলের এক নেতা সহ কতিপয় ব্যক্তিরা ভিকটিমের পরিবার এবং গ্রামবাসীদের হুমকি দিয়ে মিমাংসার জন্য চাপ প্রয়োগ করে।

একপর্যায়ে তালা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি মীর জাকির হোসেন, সাধারন সম্পাদক বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম হায়দার সহ তালার সাংবাদিকরা বিষয়টি জানতে পেরে ভিকটিম ও তার পরিবারকে থানায় আসতে সহযোগীতা করে।

তালা থানার ওসি মো. মেহেদী রাসেল জানান, ধর্ষনের শিকার শিশুর পিতা বাদী হয়ে ৩০ মে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে সোহাগ সহ ৫জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ওই ভিকটিমকে সাতক্ষীরা থেকে মেডিকেল করা সহ বিজ্ঞ ম্যজিস্ট্রেটের নিকট ১৬৪ ধারায় জবানবন্ধী রেকর্ড করানো হয়। এরপর থেকে আসামীদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চালানো হচ্ছিল। একপর্যায়ে বুধবার রাতে মহান্দি এলাকা থেকে মামলার প্রধান আসামী সোহাগকে গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার (০৪ জুন) সকালে ধুতকে আদালতের মাধ্যমে জেলা হাযতে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া অন্য আসামীদের গ্রেফতারের জন্য জোর চেষ্টা চলছে আছে বলে ওসি মো. মেহেদী রাসেল জানিয়েছেন।

#