তালা সংবাদ ॥ আর্ন্তজাতিক দূর্নীতি বিরোধ দিবস পালন


790 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালা সংবাদ ॥ আর্ন্তজাতিক দূর্নীতি বিরোধ দিবস পালন
ডিসেম্বর ৯, ২০১৫ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা :
“দেশ প্রেমের শপথ নিন, দুর্নীতিকে বিদায় দিন” এই স্লোগান সামনে রেখে তালায় আর্ন্তজাতিক দুর্নীতি বিরোধ দিবস-১৫ পালিত হয়েছে।
দূর্নীতি দমন কমিশন এর সহযোগীতায় ও তালা উপজেলা দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির আয়োজনে দিবসটি উদযাপিত হয়। দিবসটি উপলক্ষ্যে বুধবার সকালে তালা উপ-শহরে র‌্যালী বের হয়। র‌্যালী শেষে স্থানীয় তালা এরশাদ চত্বরে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি অচিন্ত্য সাহা। এসময় অন্যান্যের মধ্যে তালা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেবুন্নেছা খানম, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও তালা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের কমান্ডার মো. মফিজ উদ্দীন, ডেপুটি কমান্ডার আলাউদ্দীন জোয়ার্দ্দার, প্রবীণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব প্রদীপ মজুমদার, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সোবহান, তোফা মাষ্টার, তালা বাজার বণিক সমিতির সভাপতি সাংবাদিক মীর জাকির হোসেন, জেএসডির কেন্দ্রীয় সদস্য মীর জিল্লুর রহমান, ভূমিজ কর্মকর্তা সৈয়দ আব্দুল্লাহেল হাদী, সাংবাদিক বিএম জুলফিকার রায়হান, মানবাধিকার কমিশন সাধারন সম্পাদক কাজী এনামুল ইসলাম বিপ্লব প্রমুখ বক্তৃতা করেন।
##

তালায় উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও যুগ্ম আহবায়কের বিরুদ্ধে দুই যুবলীগ নেতার সাংবাদিক সম্মেলন
তালা প্রতিনিধি :
তালা উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সরদার জাকির হোসেন ও যুগ্ম আহবায়ক কাজী নজরুল ইসলাম হিল্লোড় এর বিরুদ্ধে তালা রিপোটার্স ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে তালা উপজেলার জালালপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মাহমুদুর রহমান মান্না এবং মাগুরা ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য আছাদুল মোড়ল এই সাংবাদিক সম্মেলন করেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠকালে জালালপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, তালা উপজেলার মাগুরা ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটি গঠন প্রক্রিয়া শুরু হলে যুবলীগ নেতা আছাদুল মোড়ল সভাপতি হিসেবে প্রার্থী হন।

বিষয়টি আছাদুল মোড়ল উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সরদার জাকির হোসেনকে অবহিত করেন। এসময় উপজেলা যুকলীগের আহবায়ক সরদার জাকির হোসেন আছাদুলের নিকট ২০ হাজার টাকা দাবী করে। এতে করে আছাদুল মোড়ল ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা ইকবল এর মাধ্যমে লতিফ শেখ’র উপস্থিতিতে ৬ হাজার টাকা প্রদান করে।

কিন্তু উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও যুগ্ম আহবায়ক আছাদুলকে সভাপতি পদ না দিয়ে কমিটির সদস্য করে ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটি গঠন করেন। উক্ত কমিটিতে জামায়াত, শিবির ও ছাত্রদলের দাগী ক্যাডারদের নাম অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। এই সকল ক্যাডারদের বিরুদ্ধে আওয়ামী সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র এবং এলাকায় নাশকতামূলক কর্মকান্ডে জড়িত থাকার মামলা রয়েছে।

উপজেলা যুবলীগ মোটা অংকের টাকা ঘুষ নিয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটিতে ছাত্রদল ও জামায়াত-শিবির ক্যাডারদের নাম অন্তর্ভূক্ত করেছে বলে সাংবাদিক সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়। মাহমৃদৃর রহমান মান্না বলেণ, মাগুরা ইউনিয়ন যুবলীগের কমিটিতে প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দলের ক্যাডারদের অন্তর্ভূক্ত এবং কমিটি গঠনে ঘুষ বানিজ্য’র প্রতিবাদ করায় অগঠনতান্ত্রিক ও সেচ্ছাচারিতার মাধ্যমে আছাদুল মোড়লকে বহিস্কার করা হয়েছে।

এছাড়া কোনও অভিযোগ না থাকা সত্বেও জালালপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মাহমুদুর রহমান মান্নাকে দল থেকে একই ভাবে বহিস্কার করা হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। তিনি আরও বলেন, তাঁর জনপ্রিয়তায় ঈর্ষাস্বিত হয়ে সমাজে হেয় করার উদ্দেশ্যে তাকে যুবলীগ থেকে বহিস্কার করা হয়। সাংবাদিক সম্মেলনে উক্ত দু’ যুবলীগ নেতার বহিস্কার প্রত্যাহারের দাবী জানানো হয়। অন্যথায় উপজেলা যুবলীগের উক্ত দুই শীর্ষ নেতার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও এসময় জানানো হয়।