তালা সংবাদ ॥ মহিলা কলেজে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সভা


519 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তালা সংবাদ ॥ মহিলা কলেজে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সভা
জুলাই ২৭, ২০১৬ তালা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা  :
তালার ঐতিহ্যবাহী নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তালা মহিলা ডিগ্রী কলেজের আয়োজনে, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী  মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে কলেজ সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন, কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুর রহমান। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মজিদ। উপাধ্যক্ষ শফিকুল ইসলামের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার ও যশোর শিক্ষা বোর্ডের উপ স্কুল পরিদর্শক মো. রফিকুল ইসলাম। সভায় অন্যান্যের মধ্যে কলেজ শিক্ষক নন্দী দিপংকর, নিলুফার বানু ও শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান নিশি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন । এসময় কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
###

তালায় খাদ্যের সাথে চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে একটি বাড়িতে চুরি চেষ্টা

বি.এম.জুলফিকার রায়হান,তালা :
ভাত, পানি ও তরকারির সাথে চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে একটি পরিবারের সদস্যদের অচেতন করে চুরির চেষ্টা করা হয়েছে। সৌভাগ্যক্রমে পরিবারটি রক্ষা পেলেও সেই খাদ্য খেয়ে পোষ্য একটি কুকুর মারাত্মক অসুস্থ্য হয়েছে। ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে এক পেশাদার চোরকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার ধুলন্ডা গ্রামের মৃত. ছকিল উদ্দীন’র পুত্র সোহরাব শেখ’র বাড়িতে।

সোহরাব শেখ জানান, মঙ্গলবার বিকালে তার কন্যা স্বপ্না খাতুন (১৬) ভাত, তরকারি ও গরুর খাদ্য রান্না শেষে প্রতিদিনের ন্যায় সকল খাবার রান্না ঘরে রাখে। এদিন সন্ধ্যায় কৌশলে রান্না করা সেই ভাত, তরকারি, গরুর খাদ্য এবং খাবার পানির কলসে ওষুধ মেশানো হয়। রাতে স্বপ্না ভাত খাবার সময় হাড়ি ভর্তি ভাতের উপর ওষুদ ছড়ানো দেখে। পরে তরকারি, গরুর খাদ্য ও পানির কলসের মধ্যে একই ওষুধ দেখতে বিষয়টি পরিবারকে জানায়।

এসময় লোকজন বিষয়টি জানতে পেরে এলাকার পেশাদার চোর আমজেদ গাজীর পুত্র সাহিদুর রহমান (৩০) কে সন্দেহ করে। এদিকে একইদিন রাতে মিঠু শেখ এর বাড়িতে চুরির চেষ্টা করা হলে এলাকার লোকজন সংঘবদ্ধভাবে সাহিদুর রহমানকে খুজতে থাকে। সাহিদুরকে রাতে বাড়িতে না পেয়ে সকালে একটি বিল থেকে তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। সোহরাব শেখ আরও জানান, চেতনানাশক ওষুধ খেয়ে অচেতন হবার থেকে সৌভাগ্যক্রমে পরিবারের ৩সদস্য সহ সম্পদ রক্ষা পেয়েছে। তবে, সেই ওষুধ খেয়ে একটি পোষ্য কুকুর মারাত্মক অসুস্থ্য হয়েছে।