তুরস্কে বোমা বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯৫


352 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
তুরস্কে বোমা বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯৫
অক্টোবর ১১, ২০১৫ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারার প্রধান রেলস্টেশনের কাছে জোড়া বোমা বিস্ফোরণে অন্তত ৯৫ জন নিহত হয়েছেন।
শনিবারের এ ঘটনায় আরও ২৪৫ জন আহত হয়েছেন বলে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী মেহমেত মেজিনোলু জানিয়েছেন।

আহতদের মধ্যে ৪৮ জনকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নিহতদের মধ্যে অধিকাংশই একটি শান্তি সমাবেশে অংশগ্রহণ করতে আসা লোক বলে বার্তা সংস্থা দোগানের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও বিবিসি।

ঘটনাটিকে ‘সন্ত্রাসী হামলা’ বলে দাবি করেছেন তুর্কি কর্মকর্তারা। বিস্ফোরণটি একটি আত্মঘাতী হামলা, এমন দাবিও তদন্ত করে দেখার কথা জানিয়েছেন তারা।

এক বিবৃতিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, শ্রমিক ইউনিয়ন ও সুশীল সমাজের গোষ্ঠীগুলোর ডাকা ওই সমাবেশে স্থানীয় সময় সকাল ১০টা চার মিনিটে হামলাটি চালানো হয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা ছবিতে ঘটনাস্থলে বহু মানুষকে পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

কুর্দি বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী পিকেকে-র সঙ্গে চলমান সহিংসতার অবসান চেয়ে শান্তি সমাবেশটির ডাক দেওয়া হয়েছিল। সমাবেশকারীদের লক্ষ্য করেই বিস্ফোরণটি ঘটানো হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

‘শান্তি ও গণতন্ত্র’ শ্লোগানকে সামনে রেখে ডাকা শান্তি সমাবেশটির উদ্যোক্তাদের মধ্যে কুর্দিপন্থি এইচডিপি পার্টিও ছিল বলে জানা গেছে। স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় সমাবেশটি শুরু হওয়ার কথা ছিল।

এইচডিপি পার্টির ট্যুইটে বহু লোক হতাহত হওয়ার কথা বলা হয়েছে, এছাড়া আহত লোকদের সরিয়ে নেওয়ার সময় পুলিশ লোকজনের উপর ‘হামলা’ চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে দলটি।

স্থানীয় বাসিন্দা এমরে জানান, তিনি দুটি বিস্ফোরণের শব্দ শুনেছেন এবং বহু লোকের মৃতদেহ দেখেছেন। উত্তেজিত লোকজন পুলিশের গাড়ির উপর হামলার চেষ্টা করেছে বলেও জানান তিনি।

এর আগে জুনে দেশটির দিয়ারবাকির শহরে এইচডিপি পার্টির আরেকটি সমাবেশেও বোমা হামলা চালানো হয়েছিল।—সুত্র:-বাংলাদেশ প্রতিদিন।