ত্বকের জন্য ক্ষতিকর ১০ খাবার


365 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ত্বকের জন্য ক্ষতিকর ১০ খাবার
অক্টোবর ৮, ২০১৫ ফটো গ্যালারি স্বাস্থ্য
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
ত্বকের সুস্থতার জন্য সঠিক খাবার গ্রহণ বড় ভূমিকা পালন করে। তবে অযাচিত খাবার ও পানীয় গ্রহণ ত্বকের লাবণ্যতা ও সুস্থতা নষ্ট করে দিতে পারে। এজন্য দরকার সঠিক জীবনযাপন ও পরিমিত খাদ্যাভ্যাস গঠন। ত্বকের সুস্থতার জন্য যে কয়েকটি খাবার মাত্রাতিরিক্ত গ্রহণ এড়িয়ে চলতে হবে নিচে আলোচনা করা হলো :

অতিরিক্ত লবণ : অতিরিক্ত লবণের কারণে দেহ ফুলে যায়, ত্বকসহ বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাই খাবারে কম লবণ ব্যবহার করতে হবে এবং বাড়তি লবণ গ্রহণ একেবারেই বাদ দিতে হবে।

অতিরিক্ত ক্যাফেইন : চা-কফিতে থাকা ক্যাফেইন দেহের কর্টিসল উৎপাদন বাড়িয়ে দেয়। এতে ত্বকের পুরুত্ব কমে যায় এবং বুড়িয়ে যাওয়া প্রক্রিয়া দ্রুত হয়। এ ছাড়া ক্যাফেইনের প্রভাবে দেহের তরল পদার্থের ঘাটতি দেখা যায় এবং বলিরেখাও তৈরি হয় দ্রুত।

জলীয় ভারসাম্য নষ্টকারী খাবার : ত্বকের শুষ্কতার জন্য অনেক সময় জলীয় ভারসাম্য নষ্টকারী কিছু খাবারকে দায়ী করেন বিশেষজ্ঞরা। শুষ্কতার কারণে প্রায়ই ত্বকে ভাঁজ ও রেখা তৈরি হয়। এসব বিষয় থেকে রক্ষা পেতে পানির ভারসাম্য নষ্ট করে এমন খাবার বাদ দিতে হবে।

অ্যালকোহল : অ্যালকোহলের কারণে দেহে হরমোন উৎপাদন প্রভাবিত হয়। এতে তরল পদার্থের ঘাটতি তৈরি হয় এবং নানাভাবে ত্বকের সৌন্দর্য নষ্ট হয়।

সুগার বর্ধক খাবার : কিছু খাবার আছে যেগুলো রক্তের সুগার বৃদ্ধির জন্য দায়ী। উচ্চ ‘গ্লাইসেমিক’ এসব খাবারের মধ্যে শীর্ষে রয়েছে গ্লুকোজ, হাই ফ্রুকটোস কর্ন সিরাপ, ধবধবে সাদা পাউরুটি ইত্যাদি। সুন্দর ত্বকের জন্য এসব খাবার এড়িয়ে চলতে হবে।

অতিরিক্ত চিনি : চিনি মানেই আক্ষরিক অর্থে চিনি নয়। অধিকাংশ মিষ্টি পদার্থ ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। তাই অতিরিক্ত চিনিযুক্ত খাবার, মধু, গুড় ও অন্য সব মিষ্টান্ন ত্যাগ করুন।

কোমল পানীয় : বাজারে প্রচলিত কোমল পানীয় ত্বকের সৌন্দর্য নষ্টের জন্য দায়ী। এসব পণ্যের চিনি ও ক্যাফেইনসহ নানা উপাদান দেহ ও ত্বকের জন্য ক্ষতিকর।

প্রক্রিয়াজাত খাবার : যেসব খাবার প্রাকৃতিকভাবে উৎপাদিত নয় বরং শিল্প-কারখানায় নানা প্রক্রিয়ায় প্রক্রিয়াজাত হয়, সেসব খাবার ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। এসব খাবারের মধ্যে রয়েছে প্যাকেট করা বা কৌটাজাত দীর্ঘদিন সংরক্ষিত বিভিন্ন খাবার, স্বাদ পরিবর্তিত মিষ্টি ফল, জুস ইত্যাদি।

লাল মাংস : যেসব মাংস স্তন্যপায়ী প্রাণী থেকে আসে সেসব মাংস দেহের নানা ক্ষতি করে। ত্বকের জন্যও ক্ষতিকর লাল মাংস নামে পরিচিত এসব মাংস। গরু, মহিষ, ভেড়া, ছাগল কিংবা অনুরূপ প্রাণীর মাংস রয়েছে এ তালিকায়।

ভাজা খাবার : অতিরিক্ত তাপে ভাজা ফ্রায়েড চিকেন, ফ্রাই, চিপস ইত্যাদি বেশ কিছু ক্ষতিকর বৈশিষ্ট্য ধারণ করে। তাপের কারণে এগুলোর খাদ্যপ্রাণ নষ্ট হয় এবং ত্বকের জন্য ক্ষতিকর উপাদানে রূপান্তরিত হয়। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া