দামারপোতায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রকে নির্যাতনের অভিযোগ


255 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দামারপোতায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রকে নির্যাতনের অভিযোগ
অক্টোবর ৯, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

মেহেদী হাসান:
দশ বছরের এক শিশুকে নির্যাতন করা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার আলামিন বিশ্বাস (৯) সদর উপজেলার দামারপোতা গ্রামের মো. বিল্লাল বিশ্বাসের ছেলে ও দামারপোতা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র। তার রোল-(৯)। আলামিন বিশ্বাস সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের ৩ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন।
নির্যাতনের শিকার আলামিন বিশ্বাসের পিতা মো. বিল্লাল হোসেন বিশ্বাস বলেন, তার ছেলে গত শুক্রবার বিকেলে প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার পথে সহপাঠিদের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। পরে সন্ধা সাতটার দিকে সদর উপজেলার দামারপোতা এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে সায়ফুল্লাহ বাড়ি থেকে তারছেলেকে ধরে নিয়ে যায়।  সায়ফুল্লাহ তার ছেলেকে ঘরের ভিতরে দড়ি দিয়ে বেধে আটকে রেখে নির্যাতন করে। নির্যাতনের এ পর্যায়ে আলামিন বিশ্বাস(৯) অজ্ঞান হয়ে পড়ে। পরদিন গত (শনিবার) সকালে তার স্বজনরা জ্ঞানশূন্য অবস্থায় আলামিনকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।
সরেজমিনে গতকাল সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে আলামিন বিশ্বাসের সারা শরিরে নির্যাতনের চিহ্ন। তার কান দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে।
সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেলের (ওসিসি) প্রোগ্রাম অফিসার আব্দুল হাই সিদ্দীক বলেন, আলামিন বিশ্বাসের বিনামূল্যে চিকিৎসা ও আইনগত সহায়তা প্রদানের সহযোগীতা করা হচ্ছে। মেধাবী ছাত্রের দ্রুত সুস্থ হওয়া জন্য মনোসামাজিক কাওন্সিলিং দেওয়া হচ্ছে।
সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক শরিফুল ইসলাম বলেন, আলামিন বিশ্বাসের নির্যাতনে কোমর থেতলে গেছে। তাছাড়া মাথায় নির্যাতনের ফলে কানে শুনতে পারছেন না।
#