দুবলারচরে রাসমেলা, উপকূলবর্তী মানুষের মধ্যে উৎসব মুখর পরিবেশ


315 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দুবলারচরে রাসমেলা, উপকূলবর্তী মানুষের মধ্যে উৎসব মুখর পরিবেশ
নভেম্বর ৩, ২০২২ ফটো গ্যালারি সুন্দরবন
Print Friendly, PDF & Email

॥ শেখ মনিরুজ্জামান মনু ॥

সুন্দরবনের দুবলারচরে তিনদিন ব্যাপী রাসমেলাকে ঘিরে উপকুলবর্তী মানুষের মধ্যে উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। মেলায় যেতে পূর্ণার্থী ও দর্শণার্থীদের প্রস্তুতি চলছে। প্রতিবছর কার্তিক মাসের শেষ বা অগ্রহায়ণের প্রথম দিকে শুক্লাপক্ষের ভরা পূর্ণিমায় সুন্দরবনের দুবলারচর আলোরকোলে ৬ নভেম্বর হতে ৮ নভেম্বর রাস মেলা অনুষ্টিত হবে। এটি এশিয়ার সবচেয়ে বড় সুমুদ্র মেলা। হাজার হাজার পূর্ণার্থী ও দর্শাণার্থীদের আগমনে মেলা উৎসবমুখর হয়ে ওঠে। এ মেলাকে কেন্দ্র্রকরে সুন্দরবন উপকুলবর্তী মানুষের মধ্যে উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। মেলায় যাওয়ার জন্য ট্রলার ভাড়াসহ বিভিন্ন প্রস্তুতি চলছে। হিন্দু ধর্মালম্বীরা পূর্ণিমার জোয়ারে নোনা জলে স্লানের মধ্যদিয়ে পাপমোচন হয়ে মনস্কামনা পূর্ণ হবে । এ বিশ্বাসে রাসমেলায় যোগ দিলেও সময়ের ব্যবধানে এখন নানা ধর্ম ও বর্ণের মানুষের মধ্যে তা ছড়িয়ে পড়েছে। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে লঞ্চ,ট্রলার ও নৌকা যোগে তীর্থযাত্রী ও দর্শণার্থীরা এবং দেশী-বিদেশী পর্যটক সমবেত হয় রাসমেলায়। মেলার সময় হিরন পয়েন্ট,দুর্বারচর,আলোর কোলসহ বিভিন্ন চর ও সাগর মোহনায় পূর্ণার্থী ,দর্শাণী ও পর্যটক সহ হাজার হাজার মানুষের সমাগম ঘঠে । সুন্দরবন পশ্চিম বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ডক্টর মোহাম্মদ মোহসিন হোসেন জানান, রাস মেলায় দর্শণার্থী ও তীর্থযাত্রীদের নিরাপদে যাতায়াতের জন্য সুন্দরবন পশ্চিম বন বিভাগ ৫ টি রুট নির্ধারন করেছে। এ সকল রুটে বন বিভাগ,পুলিশ,বিজিবি ও কোস্টগার্ড তীর্থযাত্রী ও দর্শণার্থীদের জান-মালের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে । রাস মেলাকে ঘিরে অভিযান পরিচালনার জন্য বন বিভাগের নেতৃত্বে বিভিন্ন টিম গঠন করা হয়েছে । তীর্থযাত্রীরা যাতে নিবিঘেœ চলাচল করতে পারে তার জন্য সকল প্রকার সহযোগিতা করা হবে। রাসমেলাকে কেন্দ্র করে র‌্যাব সহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সার্বক্ষনিক টহলে নিয়োজিত থাকবে।

#