দুর্যোগ,লকডাউন ও জলাবদ্ধতায় মানুষের অবর্ণনীয় দুঃখ কষ্ট, সাতক্ষীরা নাগরিক কমিটির উদ্বেগ


122 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দুর্যোগ,লকডাউন ও জলাবদ্ধতায় মানুষের অবর্ণনীয় দুঃখ কষ্ট, সাতক্ষীরা নাগরিক কমিটির উদ্বেগ
জুন ১৮, ২০২১ দুুর্যোগ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

ঘূর্ণিঝড় আম্পান-ইয়াস কবলিত সাতক্ষীরার উপকূলীয় এলাকার মানুষের দুঃখ, কষ্ট, দুর্ভোগ প্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে। দুর্যোগ এলে বাঁধ বাধার বিষয়টি সামনে আসে। তারপর সবাই সবকিছু ভূলে যায়। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, উপকূলের অনেক এলাকায় এখনো মানুষের দাফন করার মতও কোন শুকনা জায়গা নেই। গত ১৭ জুন আশাশুনির প্রতাপনগরে একজন মৃত ব্যক্তির কবর পানির হাত থেকে রক্ষা করতে দাফন করা হয়েছে ইটের গাঁথুনি দিয়ে নির্মিত কবরের ভিতরে।


ঠিক একই সময়ে সাতক্ষীরা জেলার করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ায় একের পর স্থানীয়ভাবে লকডাউন দেওয়া হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতি রীতিমত ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। লকডাউনে দিনমজুর, শ্রমজীবী, কর্মজীবী, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীসহ দিন আনা দিন খাওয়া মানুষ এবং মধ্যবিত্ত নি¤œমধ্যবিত্তদের অবস্থা শোচনীয় হয়ে পড়েছে। গতবছর করোনার শুরুতে সরকারী বেসরকারী ও ব্যক্তি পর্যায় থেকে মানুষের সহায়তায় অনেকে এগিয়ে এলেও বর্তমানে তেমন কোন কার্যক্রম দেখা যাচ্ছে না। ফলে মানুষের সংকট আরো ঘণিভূত হচ্ছে।


চলমান এই সংকটকালীন সময়ে মরার উপর খাড়ার ঘায়ের মত গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে সাতক্ষীরা শহরের ইছাগাছা, কামালনগর, মধুমোল্লারডাঙ্গী, কাটিয়া মাঠপাড়া, বদ্দিপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্ঠি হয়েছে। শহরের পানি নিষ্কাশনের পথগুলোতে মাছের ঘের করায় প্রতিবছরের মত এবারও এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন ও পৌর কতৃপক্ষ এ ব্যাপারে বিভিন্ন সময়ে পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বললেও বাস্তবে কাজের কাজ কিছুই হয়নি। এমন পরিস্থিতিতে এবছর শহরের জলাবদ্ধতা পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হয়ে উঠতে পারে।


সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির নেতৃবৃন্দ চলমান এই সংকটকালীন পরিস্থিতিতে সরকারের আশু হস্তক্ষেপের জন্য রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় প্রশাসনসহ সর্বস্তরের মানুষকে কার্যকর ভূমিকা রাখার আহবান জানিয়েছেন।


জেলা নাগরিক কমিটির পক্ষে বিবৃতিদাতারা হলেন, সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক মো. আনিসুর রহিম, যুগ্ম আহবায়ক, এড. শেখ আজাদ হোসেন বেলাল, সদস্য সচিব এড. আবুল কালাম আজাদ, যুগ্ম সদস্য সচিব আলী নুর খান বাবলু, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল হামিদ, দৈনিক দক্ষিণের মশাল সম্পাদক অধ্যক্ষ আশেক-ই-এলাহী, জেলা জেএসডি’র নেতা সুধাংশু শেখর সরকার, জেলা জাসদ সভাপতি ওবায়দুস সুলতান বাবলু, বাংলাদেশ জাসদ জেলা সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক ইদ্রিশ আলী, জেলা সিপিবি সভাপতি আবুল হোসেন, বাসদের সমন্বয়ক নিত্যানন্দ সরকার, উদীচীর সভাপতি শেখ সিদ্দিকুর রহমান, জেলা বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আল মাহামুদ পলাশ, আসাদুজ্জামান লাভলু, উন্নয়ন কর্মী মাধব চন্দ্র দত্ত, এড. মুনির উদ্দিন, শেখ মনিরুজ্জামান, মোহন কুমার মন্ডল, মরিয়ম মান্নান, মটর শ্রমিক নেতা রবিউল ইসলাম, মহব্বত আলী, ভূমিহীন নেতা কওসার আলী, আব্দুস সামাদ, আব্দুস সাত্তার, সাহিত্যিক গাজী শাহজাহান সিরাজ প্রমুখ।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি