দেবহাটায় কামড়ে মেয়ের বাবার কান কেটে নিলো বখাটে !


367 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেবহাটায় কামড়ে মেয়ের বাবার কান কেটে নিলো বখাটে !
জুন ২০, ২০১৯ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আর কে বাপ্পা,দেবহাটা ::

দেবহাটায় ইভটিজিংয়ে বাঁধা দেয়ায় আজিজুল ইসলাম খোকন (৪৫) নামের এক মেয়ের বাবার কান কামড়ে কেটে নিয়েছে এলাকার বখাটে আবু জাফর। বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে উপজেলার ঘলঘলিয়া মোড়ে ঘটনাটি ঘটে। বখাটের কামড়ে কান হারানো মেয়ের বাবা আজিজুল ইসলাম খোকন ঘলঘলিয়া গ্রামের রহমতুল্যা সরদারের ছেলে। বর্তমানে সখিপুরস্থ দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজিজুল ইসলাম খোকন জানান, দীর্ঘদিন ধরেই উপজেলার সরকারি খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজে এইচএসসি ২য় বর্ষে পড়ুয়া তার মেয়েকে উত্যক্ত করে আসছিলো ঘলঘলিয়া গ্রামের রিয়াজুল সরদারের ছেলে ও এলাকার চিহ্নিত বখাটে আবু জাফর। এঘটনায় তিনি একাধিকবার মেয়েকে উত্যক্ত না করার জন্য বখাটে আবু জাফরকে বলেন। কিন্তু এরপরও বখাটে আবু জাফর তার মেয়েকে উত্যক্ত করা থেকে বিরত না হয়ে বরং মেয়ের বাবা আজিজুল ইসলাম খোকনের উপর চরমভাবে ক্ষুদ্ধ হয়। বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় আজিজুল ইসলাম খোকন বাড়ী থেকে পাশ্ববর্তী ঘলঘলিয়া বাজারে আসলে বখাটে আবু জাফর তার ওপর আকর্ষিক ঝাপিয়ে পড়ে আজিজুল ইসলাম খোকনের বাম কানটি দাত দিয়ে কামড়ে কেটে নেয়। এসময় গুরুতর আহত অবস্থায় খোকনকে সখিপুরস্থ দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন স্থানীয়রা। এ ঘটনার পরপরই আহত খোকনকে দেখতে দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা, দেবহাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, সখিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার আমজাদ হোসেন সহ আওয়ামী লীগ নেতারা হাসপাতালে আসেন। এ ব্যাপারে বখাটে আবু জাফরের বিরুদ্ধে দেবহাটা থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে আহতের পরিবার।