দেবহাটার কুলিয়ায় নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর ও পোড়ানোর ঘটনায় ডিসি ও এসপির নিকট অভিযোগ


327 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেবহাটার কুলিয়ায় নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর ও পোড়ানোর ঘটনায় ডিসি ও এসপির নিকট অভিযোগ
মার্চ ১৪, ২০১৬ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আর.কে.বাপ্পা, দেবহাটা :
দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নে আনারস প্রতিকের নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর, পোড়ানো এবং পোস্টার ছিড়ে ফেলার বিষয়ে ডিসি, এসপি, ইউএনও এবং ওসির নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগটি দায়ের করেছেন দক্ষিন কুলিয়া গ্রামের আলহাজ্ব ইউনুস আলী সরদারের ছেলে সফটরক গ্রুপের চেয়ারম্যান ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আনারস প্রতিক নিয়ে ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ইমাদুল ইসলাম।

লিখিত অভিযোগে তিনি জানিয়েছেন, তার নির্বাচনী প্রতিক আনারসে ভোট না দেয়ার জন্য তার প্রতিপক্ষ আসাদুল হক ও তার ছেলে তিন চার দিন যাবৎ বহিরাগত সন্ত্রাসীদের নিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির লক্ষ্যে নানাবিধ অপপ্রচার চালিয়ে আসছে। গত ১৩ই মার্চ বিকাল ৩ টার দিকে আসাদুল চেয়ারম্যান ৪০/৫০ টি মোটর সাইকেল সহ তার পুত্র ৮০/৯০ জন সন্ত্রাসী নিয়ে তার নির্বাচনী পোষ্টার ছিড়ে ফেলে। পরে টিকেটে তার নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করে এবং সংখ্যালঘু এলাকায় জনমনে ভয়ভীতি ও আতঙ্ক সৃষ্টির লক্ষ্যে আওয়ামীলীগ কর্মী অনিল সরকার, সুনীল, স্বরজীৎ সর্ব পিতা- সূর্যকান্ত, বাদল পিতা- জড়ো সরদার সহ বড়মিয়া এবং মনিরুলসহ তাদেরকে মারধর করে রক্তাক্ত করে। পরে প্রশাসনের কর্মকর্তারা আসাদুল চেয়ারম্যানের জৈষ্ঠ্য পুত্র সহ কয়েকজনকে আটক করে। পরে কয়েকজন মিলে আনারস প্রতিকের অফিসে অগ্নিসংযোগ করে। আসাদুল চেয়ারম্যানের এহেন কর্মকান্ডে আসন্ন নির্বাচনে ভয়ভীতি ও উৎকন্ঠার সৃষ্টি হয়েছে। তিনি সন্ত্রাসী ঘটনার প্রতিকার এবং নির্বাচন যাতে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহনযোগ্য হয় তার ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করেছেন।