দেবহাটায় তাতীলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে আওয়ামীলীগের মানববন্ধন


116 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেবহাটায় তাতীলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে আওয়ামীলীগের মানববন্ধন
জুন ২, ২০১৯ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আর.কে.বাপ্পা ::

দেবহাটা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও তাতীলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে আওয়ামীলীগের মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার সকাল ১০ টায় পারুলিয়াস্থ শহীদ আবু রায়হান চত্বরে উপজেলা তাতীলীগের সভাপতি ও সম্পাদক কর্তৃক সাবেক শিবির ক্যাডার ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন রতন হত্যা চেষ্টা মামলার স্বীকারোক্তি দেয়া আসামী চার্জশীটভুক্ত আসামী ওয়ালিউল্লাহকে সখিপুর ইউনিয়ন তাতীলীগের সদস্য সচিব হিসেবে মনোনীত করার প্রতিবাদে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও বিভিন্ন অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের আয়োজনে এই মানববন্ধন ও সমাবেশ কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। মানববন্ধনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও নওয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মুজিবর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিন্নুর, সাধারণ সম্পাদক বিজয় ঘোষ, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম সোহাগ প্রমুখ। এসময় বক্তারা বলেন, ২০১৩ সালের নাশকতাকারী শিবির নেতা ওয়ালিউল্ল্যাহ ১৬৪ ধারায় জবানবন্দীতে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতন হত্যার চেষ্টার সাথে জড়িত থাকার কথা নিজে স্বীকার করেছে তাকে সখিপুর ইউনিয়ন তাতীলীগের সদস্য সচিব করা হয়েছে। এতে আওয়ামীলীগের রাজনীতিকে কলুষিত করেছে উপজেলা তাতীলীগ। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি জানান, উপজেলা তাতীলীগের সভাপতি ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান সবুজ জামায়াতের ভবিষ্যৎ এজেন্ডা বাস্তবায়নের ফসল। সে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি থাকাকালীন ছাত্রশিবিরের নেতাদেরকে ছাত্রলীগে নিয়ে এসেছেন। সবুজ তাতীলীগের আহবায়ক হওয়ার পরপরই আবারো সেই চিহ্নিত শিবির নেতা ও হত্যা চেষ্টা মামলার আসামী ওয়ালিউল্লাহকে সখিপুর ইউনিয়ন তাতীলীগের সদস্য সচিব মনোনীত করেছে। সবুজ জামায়াতের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে। মনিরুজ্জামান মনি অবিলম্বে জেলা তাঁতীলীগের মাধ্যমে উপজেলা তাঁতীলীগের কমিটি ও ইউনিয়নের সকল কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি গঠনের অনুরোধ জানান। তা নাহলে ঈদের পরপরই উপজেলা আওয়ামীলীগ দলীয় রেজুলেশন করে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ, জেলা আওয়ামীলীগ, কেন্দ্রীয় তাতীলীগ ও জেলা তাতীলীগের কাছে পাঠানো হবে। এছাড়া উপজেলা থেকে তাঁতীলীগকে অবাঞ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন মনিরুজ্জামান মনি। মানববন্ধনে এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক আজহারুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক শেখ মোনায়েম হোসেন, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রউফ, পারুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মাহমুদুল হক লাভলু, সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন সাহেব আলী, সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল কাশেম, কুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বিধান বর্মণ, উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি শেখ তাজুল ইসলাম তাজু, উপজেলা স্বেচ্ছসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক লোকমান কবিরসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।

#