দেবহাটায় প্রথম সনাক্ত করোনা রোগীর বাড়ি লকডাউন


178 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেবহাটায় প্রথম সনাক্ত করোনা রোগীর বাড়ি লকডাউন
মে ৬, ২০২০ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আর.কে.বাপ্পা, দেবহাটা :
দেবহাটায় প্রথম সনাক্ত করোনা রোগীর বাড়িসহ আশেপাশের কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতেই দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ি যেয়ে সকলকে সতর্কতার সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলা করার এবং লকডাউনকৃত সকল বাড়ির সদস্যদের পাশে থাকার ঘোষনা দেন।

এসময় এছাড়া সখিপুর কেবিএ কলেজে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকা করোনা সনাক্ত উপজেলার সদর ইউনিয়নের দেবহাটা গ্রামের মান্দার গাজীর পুত্র রেজাউল ইসলাম গাজীকে কোয়ারেন্টাইন থেকে পৃথক করে আলাদা কক্ষে রেখে পর্যবেক্ষনে রেখে চিকিৎসা প্রদান ও তার সার্বিক দেখাশুনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল লতিফ।

ডাঃ আব্দুল লতিফ জানান, আক্রান্ত ব্যক্তির রিপোর্ট পজিটিভ জানার পরপরই তিনি আইইডিসিআরে যোগাযোগ করে কথা বলেছেন। আগামী ১৪ দিন পরে আবারো কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের নমুনা পরীক্ষা করা হবে বলে আইইডিসিআর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে বলে ডাঃ আব্দুল লতিফ জানান। এছাড়া বুধবার দুপুর দেবহাটা ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকর গাজী, ইউপি সদস্য আরমান হোসেন লকডাউনকৃত সকলের বাড়িতে যেয়ে তাদের প্রতি পরিবারকে চাউল, আলুসহ বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী প্রদান করেছেন।

জানা যায়, রেজাউল ইসলাম (৪৫) ঢাকার নারায়নগঞ্জে ইট ভাটায় কাজ করতো। রেজাউলসহ ২৪ জন গত ১লা মে বাড়িতে আসলে স্থানীয় ইউপি সদস্য আরমান হোসেনের হস্তক্ষেপে দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীন তাদেরকে সখিপুর খান বাহাদুর আহছানউল্লাহ কলেজে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়ে দেন। তাদের মধ্যে ১০ জনের নমুনা ৩ মে পরীক্ষার জন্য খুলনা পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। সেখান থেকে ৫ মে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রেজাউলের রিপোর্ট পজেটিভ হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডাঃ জয়ন্ত সরকার। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীন করোনা সনাক্ত ব্যক্তির বাড়িসহ আশেপাশের ১০টি বাড়ি এবং সনাক্ত ব্যক্তির স্ত্রী লাল বানু বকুল নামে সাবেক মহিলা সদস্যের বাড়িতে কাজ করতো ঐ বাড়িটাও লকডাউন করা হয়েছে বলে ইউএনও জানান।