দেবহাটায় প্রবল বর্ষনে ফসলি জমি, ঘেরসহ অসংখ্যা প্রতিষ্ঠান প্লাবিত


122 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেবহাটায় প্রবল বর্ষনে ফসলি জমি, ঘেরসহ অসংখ্যা প্রতিষ্ঠান প্লাবিত
সেপ্টেম্বর ২১, ২০২১ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আর.কে.বাপ্পা ::

দেবহাটা উপজেলাব্যাপী গত কয়েকদিনের প্রবল বর্ষনে ফসলি জমি, রাস্তাঘাট, ঘেরসহ অসংখ্যা প্রতিষ্ঠান পানির নিচে তলিয়ে গেছে। অপরিকল্পিতভাবে ঘের করায় পানি সরানোর কোন ব্যবস্থা না থাকায় এই মহামারীর সময়ে মানুষের শেষ সম্বল মাছগুলো ভেসে যাওয়ায় মাথায় হাত উঠেছে অসংখ্যা মৎস্য চাষীর। উপজেলার অধিকাংশ নিচু এলাকা এখন পানিতে নিমজ্জিত। পুকুর, বাগান, সবজি খেত, কবরস্থান সবই পানিতে একাকার। দেবহাটা উপজেলা সদরের দেবহাটা বাজার, কুলিয়া, পারুলিয়া, নওয়াপাড়া ও সখিপুর এলাকা পানিতে তলিয়ে গেছে। সখিপুর গ্রামে যে পানি সরার জন্য একটা জায়গা সখিপুর ব্র্যাক অফিসের সামনে দিয়ে গিয়েছে সেখানে নেই কোন পানি সরানোর সুব্যবস্থা। পানি সরার পথ বন্ধ থাকার কারণে সখিপুর মোড়ের আহ্ছানিয়া ফার্মেসী, আলতাফ মেডিকেল, মোমেনা ফার্মেসী, মা মনি ফার্মেসী, শাহেদ ফার্মেসী, আহ্ছানিয়া ক্লিনিক, ঝর্ণা ক্লিনিকসহ অসংখ্য দোকান প্রতিষ্ঠান পানিতে তলিয়ে গেছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ অনুমান প্রায় ৪/৫ লক্ষ হবে বলে ঔষধ ব্যবসায়ী আব্দুর রাজ্জাক রাজু জানান। এছাড়া দেবহাটা উপজেলা সদরের দেবহাটা বাজার এলাকার ড্রেনটি বালু ব্যবসায়ীরা পাইপ দিয়ে বনধ করার কারনে বাজারের মধ্যে হাটু সমান পানি উঠে গেছে। যার কারনে সোমবার দেবহাটা বাজার বসতে পারেনি। এতে সাধারন মানুষ ভোগান্তিতে পড়ে। উপজেলার নিচু এলাকাগুলো পানিতে ডুবে যাওয়ার কারনে লক্ষ লক্ষ টাকার মৎস্য নষ্ট হয়ে ব্যবসায়ীরা ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। অনেক ফসলি জমির ধান ও রাস্তাঘাট পানির নীচে তলিয়ে আছে। অনেক কাচা ঘরবাড়ি ভেঙ্গে গিয়ে মানুষেরা ঘরছাড়া হয়েছেন। তবে এখন পর্যন্ত ক্ষয়ক্ষতির পরিমান সঠিক হিসাব করা না গেলেও আনুমানিক কয়েক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে এলাকাবাসীর ধারনা।

#