দেবহাটায় বৃদ্ধা মহিলার পৈত্রিক সম্পত্তি দখলের অভিযোগে দুই জামায়াত-শিবির কর্মীর বিরুদ্ধে


452 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেবহাটায় বৃদ্ধা মহিলার পৈত্রিক সম্পত্তি দখলের অভিযোগে দুই জামায়াত-শিবির কর্মীর বিরুদ্ধে
মে ২৯, ২০১৬ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার পারুলিয়ায় এক বৃদ্ধা মহিলার পৈত্রিক সম্পত্তি জাল জালিয়াতি করে তা দখলের অভিযোগ উঠেছে দুই জামায়াত-শিবির কর্মীর বিরুেদ্ধ। রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ভাদড়া গ্রামের মৃত আক্তার আলীর স্ত্রী আম্বিয়া খাতুন।
এ সময় তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, তার পিতারা ২ ভাই। একজন তার পিতা মৃত আব্দুল হামিদ মোড়ল, অন্যজন তার চাচা মৃতঃ আব্দুল ওহাব মোড়ল। পিতার একমাত্র সন্তান তিনি। তাকে রেখে তার পিতা পরলোকগমন করেন। আর তার চাচা মৃতঃ ওহাব মোড়লের ৬ পুত্র ও ৬ কন্যা।  এর মধ্যে তার চাচাতো ভাই রফিকুল ইসলাম খোকন ও তার ছেলে শাহেদ ইকবাল চন্দন দুধর্ষ লাঠিয়াল প্রকৃতির ও জামায়াত-শিবিরের ক্যাডার। তারা প্রতারণা, ঠকবাজীতে সিদ্ধহস্ত। সম্প্রতি শাহেদ ইকবাল চন্দন তার (আম্বিয়া খাতুনের) ওয়ারেশ সূত্রেপ্রাপ্ত দেবহাটা উপজেলার পারুলিয়া মৌজার ৬২ শতক জমি জাল দলিল করে দখল করে নেয়। এর প্রতিবাদ করায় সন্ত্রাসী রফিকুল ও তার ছেলে তাকে (আম্বিয়া খাতুন) এবং তার ছেলেদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দেয়। তিনি আরো বলেন, বর্তমানে তিনি প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়ে শয্যাশায়ী ও মানবেতর জীবনযাপন করছেন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, রফিকুল ইসলাম খোকন ও তার ছেলে শাহেদ ইকবাল চন্দন এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তারা ২০১৩ সালে জামায়াত-শিবিরের তা-বলীলার অন্যতম মহানায়ক ও অনেক নাশকতা মামলার আসামি। তারা ২০১৩ সালে পারুলিয়া শাকনদারার মোড়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কবর তৈরী করে এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করেছিল। অল্প কিছুদিন আগে এই দুর্ধর্ষ জামায়াত-শিবির ক্যাডাররা জেল থেকে মুক্তি পায়। তাদের ভয়ে এলাকাবাসী ভীত সন্ত্রস্ত। তিনি বলেন, রফিকুল ইসলাম দেবহাটা থানায় একজন চিহ্নিত নাশকতাকারী সন্ত্রাসী ও তার পুত্র শিবির ক্যাডার হিসেবে পরিচিত।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি পৈত্রিক সম্পত্তি ফিরে পেতে এবং সন্ত্রাসী রফিকুল ইসলাম খোকন ও তার ছেলে শাহেদ ইকবাল চন্দনের বিরুদ্ধে শাস্তির দাবিতে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।##