দেবহাটায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ : পৃথক ৩ টি মামলা


234 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেবহাটায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ : পৃথক ৩ টি মামলা
জুন ২৭, ২০১৯ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আর.কে.বাপ্পা ::

দেবহাটায় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় পৃথক ৩ টি মামলা হয়েছে। দেবহাটা থানায় দায়েরকৃত উক্ত ৩ টি মামলার মোট আসামী করা হয়েছে ৪৫ জনকে। তবে উক্ত মামলার কোন আসামী এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এখনো গ্রেফতার হয়নি বলে জানা গেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেবহাটা উপজেলাব্যাপী যে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছিল সেটাও প্রত্যাহার করা হয়েছে। গত ২/৩ দিন ধরে সখিপুর সরকারী কেবিএ কলেজে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের একটি গ্রুপের মধ্যে রাজনৈতিক বিরোধকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ বাধে। এ ঘটনায় উভয় গ্রুপের কয়েকজন আহত হয়। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে দেবহাটা উপজেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্খায় দেবহাটা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলাব্যাপী ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। বিরোধকে কেন্দ্র করে উভয় গ্রুপ পাল্টাপাল্টি সমাবেশ ও মিছিলের আয়োজন করলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর অবস্থানের কারনে উভয় গ্রুপ কোন সভা সমাবেশ করতে পারেনি। এক পর্যায়ে দেবহাটা থানায় উভয় গ্রুপের পক্ষ থেকে পৃথক ৩ টি মামলা দায়ের করা হয়। এই মামলাগুলোর মোট আসামী করা হয়েছে ৪৫ জনকে। মামলার বাদী হয়েছেন দক্ষিন পারুলিয়া গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে আফিফ হাসান। এই মামলায় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান সবুজসহ ১১ জনকে আসামী করা হয়েছে। মামলা নং- ১২, তাং- ২৬-০৬-১৯ ইং। মামলার ধারা হলো, ১৪৩/৩২৩/৩২৫/৩০৭/৩৭৯/৪২৭/৫০৬/১১৪ পেনাল কোড ১১৪। এছাড়া সখিপুর কেবিএ কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়জুল্লাহ বাদী হয়ে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিন্নুরকে আসামী করে মোট ১৭ জনের নামে একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং- ১১, তাং- ২৬-০৬-১৯ ইং। ধারা ১৪৩/৪৪৭/৩২৩/৩২৪/৩২৫/৩৭৯/৫০৬/১১৪ পেনাল কোড ১৮৬০। অপরদিকে একই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপজেলার খেজুরবাড়িয়া গ্রামের আলহাজ¦ আবুল কাশেমের ছেলে মুনছুর আলী মোল্লা বাদী হয়ে ১৭ জনকে আসামী করে অপর একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং- ১০, ২৬-০৬-১৯ ইং। দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সংঘর্ষের ঘটনায় পৃথক ৩ টি মামলা দায়ের হয়েছে স্বীকার করে জানান, মামলাগুলো পুলিশ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করছে। তদন্তপূর্বক পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

#