দেবহাটায় শিশু কন্যাকে শারীরিকভাবে শ্লীলতাহানী করায় আটক ১, মামলা


282 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেবহাটায় শিশু কন্যাকে শারীরিকভাবে শ্লীলতাহানী করায় আটক ১, মামলা
জুলাই ৩, ২০২১ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আর.কে.বাপ্পা ::

দেবহাটায় শিশু কন্যাকে শারীরিকভাবে শ্লীলতাহানি করায় আটক ১ জন। এ ঘটনায় ঐ শিশুটির মা বাদী হয়ে দেবহাটা থানায় মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ ঐ মামলার আসামীকে আটক করেছে। মামলা নং- ০১, তারিখ- ০২-০৭-২১ ইং। মামলার আজাহর মতে জানা গেছে, উপজেলার পারুলিয়া গুচ্ছগ্রামের হাফিজুল ইসলামের স্ত্রী হাবিবা খাতুন (২৬) দেবহাটা থানায় দায়ের করা মামলায় উল্লেখ করেছেন আসামী আলি হোসেন (৪৫), পিতা- মুনছুর আলি গাজী, সাং- গুচ্ছগ্রাম (পারুলিয়া), থানা- দেবহাটা, জেলা- সাতক্ষীরা একজন দুশ্চরিত্র লম্পট এবং তাদের নিকটতম প্রতিবেশী। একই সাকিনস্থ্য আসামীর বাড়ীর পাশে তার মেজ ভাই আবুল হাসানের বাড়ীর সামনে আসামীর একটি দোকান আছে। সে ঐ দোকানের বিভিন্ন ধরনের খাবারসহ মুদি মালামাল বিক্রয় করে। বাদীনির সাড়ে ৬ বছরের শিশুকন্যাসহ এলাকার অনেক শিশুরা ঐ দোকানে খাবার কিনতে যায়। ইং-২৩/০৬/২০২১ তারিখ বিকাল অনুমান সাড়ে ৪ টার সময় বাদীনির শিশু কন্যা হালিমা এবং তার অপর এক খেলার সাথীকে নিয়ে আসামীর দোকানে যায়। এসময় আসামী তার কন্যার নিকট যাইয়া যৌনকামনা চরিতার্থ করিবার জন্য তার পরিধেয় প্যান্টের উপর দিয়া যৌনাঙ্গে হাত দেয় এবং তার শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। তার কন্যা সেসময় দ্রুত দৌড় দিয়ে বাড়ীতে এসে তাকেসহ স্থানীয়দের জানায়। এ ঘটনা উল্লেখ করে তিনি মামলাটি দায়ের করেছেন। পুলিশ মামলার আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরন করেছে। দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা শিশু শ্লীলতাহানীর ঘটনায় মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, উক্ত মামলার আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।