দেবহাটা উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনকে ঘিরে সর্বত্র জল্পনা কল্পনা


210 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেবহাটা উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনকে ঘিরে সর্বত্র জল্পনা কল্পনা
অক্টোবর ৪, ২০২০ দেবহাটা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

প্রার্থী নির্বাচনে ব্যস্ত দলগুলো

আর.কে.বাপ্পা, দেবহাটা ::

আসন্ন দেবহাটা উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনকে ঘিরে উপজেলার সর্বত্র জল্পনা কল্পনা শুরু হয়ে গেছে। কে হবেন প্রার্থী এই নিয়ে চুলচেরা হিসাব নিকাশ চলছে। আর ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের প্রার্থী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শুরু থেকে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করলেও সম্প্রতি বিএনপিও উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী দেবে বলে জানা গেলে সে হিসাব নিকাশ পাল্টে যেতে পারে বলে আওয়ামীলীগ দলীয় সূত্র মতে জানা গেছে। সেই সূত্র মতে জানা যায়, সবদিক বিবেচনা করে প্রার্থী নির্বাচনে ব্যস্ত সময় পার করছে ক্ষমতাসীন দল ও বিএনপি। তবে অন্য কোন দলের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোন প্রার্থী দেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি। উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, দেবহাটা উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনের তফসিল এখনও ঘোষণা করেনি নির্বাচন কমিশন। দেবহাটা উপজেলা সর্বশেষ ভোটার তালিকা অনুযায়ী উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা রয়েছে ১ লক্ষ ১২ হাজার ৪ শত ১২ জন। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৭ হাজার ১ শত ৫ জন ও মহিলা ভোটার ৫৫ হাজার ৩ শত ৭ জন। ৫টি ইউনিয়নের পরিসংখ্যান অনুযায়ী কুলিয়া ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৫ হাজার ৬ শত ৮৬ জন। তার মধ্যে পুরুষ ১৩ হাজার ১ শত ১২ ও মহিলা ১২ হাজার ৫ শত ৭৪ জন। পারুলিয়া ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৭ হাজার ৮ শত ৪৫ জন। তার মধ্যে পুরুষ ১৪ হাজার ১ শত ৩৬ ও মহিলা ১৩ হাজার ৭ শত ৮ জন। সখিপুর ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৮ হাজার ৪ শত ৩২ জন। তার মধ্যে পুরুষ ৯ হাজার ৩ শত ৬৬ ও মহিলা ৯ হাজার ৬৬ জন। নওয়াপাড়া ইউনিয়নে মোট ভোটার ২৫ হাজার ৩ শত ৭৫ জন। তার মধ্যে পুরুষ ১২ হাজার ৯ শত ৭১ ও মহিলা ১২ হাজার ৪ শত ৪ জন। এছাড়া দেবহাটা সদর ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৫ হাজার ৭৪ জন। তার মধ্যে পুরুষ ৭ হাজার ৫ শত ২০ ও মহিলা ৭ হাজার ৫ শত ৫৪ জন। ইতিমধ্যে এই উপ-নির্বাচনকে ঘিরে সম্ভাব্য প্রাার্থীদের নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। অনেকেই শুরু করেছেন গণসংযোগ। উপনির্বাচন নিয়ে নানা মুখী বিতর্কের মধ্যেও স্বচ্ছ ও জবাবদিহিতামূলক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে অনেকেই মনে করেন। আর সে ক্ষেত্রে নির্ভয়ে ভোট প্রদানের নিশ্চয়তাও আশা করেন তারা। বিভিন্ন এলাকার মানুষের কাছে গিয়ে নিজের অবস্থান জানান দিচ্ছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। বিশেষ করে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের একাধিক প্রার্থী দলীয় মনোনয়নের প্রত্যাশা করে গণসংযোগ অব্যাহত রেখেছেন। এর মধ্যে বর্তমান উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নওয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুজিবর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাডঃ স ম গোলাম মোস্তফা প্রচার প্রচারনা চালানোর পাশাপাশি কেন্দ্রে লবিং শুরু করে দিয়েছেন দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার প্রত্যাশায়। এছাড়া বিএনপির কোন প্রার্থী ইতিমধ্যে কোন প্রচার প্রচারনা শুরু না করলেও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মহিউদ্দীন সিদ্দিকী, উপজেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক পারুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ও উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক সাবেক পারুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক বাবুর নাম শোনা যাচ্ছে। অন্যদিকে উপজেলা উপ-নির্বাচনকে সামনে রেখে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে গণসংযোগ শুরু করেছেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সমাজসেবক ও সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব আল ফেরদাউস আলফা। এদিকে উপ-নির্বাচনে বিএনপি ভোটযুদ্ধে অংশগ্রহণ করতে চায় বলে দলীয় একাধিক সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে। এ বিষয়ে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক বাবু জানিয়েছেন, বিএনপি এ উপ-নির্বাচনে অংশগ্রহনের ব্যাপারে দলীয় হাই কমান্ড থেকে এ বিষয়ে চিঠি দিয়েছে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে জেলা ও উপজেলা বিএনপির সিনিয়র নেতাদের নিয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত জানানো হবে বলে তিনি জানান। তবে এলাকার সাধারণ জনগণ বলছে, যদি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় তবে যে ব্যক্তি জনগণের উপকারে আসে আমরা তেমন প্রার্থীকেই বেছে নেবো। আওয়ামীলীগ ও বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর কে হবেন আগামী দিনের দেবহাটা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তার জন্য ভোট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে বলে বিশ্লেষকরা মনে করেন। উল্লেখ্য, গত ২৪ মার্চ ২০১৯ তারিখে উপজেলা নির্বাচনে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আব্দুল গনি আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হন। কিন্তু গত ৬ আগস্ট ২০২০ তারিখে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল গনি মহামারী করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেলে উপজেলা চেয়ারম্যানের পদটি শূন্য হয়।

#