দেশের ক্ষতি হয় এমন সংবাদ প্রকাশে সতর্ক হতে আহ্বান


398 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেশের ক্ষতি হয় এমন সংবাদ প্রকাশে সতর্ক হতে আহ্বান
আগস্ট ৯, ২০১৬ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক :
দেশের ক্ষতি হতে পারে এমন কোনো ধরনের সংবাদ প্রকাশে সাংবাদিকদের আরও যত্নবান হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “যেই সংবাদটি পরিবেশন করলে দেশের ক্ষতি হবে, সেই সংবাদটি দয়া করে… ; এই জায়গাটি আপনাদের বিবেক, বিবেচনার কাছে রেখে গেলাম। কারণ অনেক কিছুই ঘটে গিয়েছে। আমি আর বলতে চাই না।

“অনেক কিছুই ঘটে গিয়েছে… আমরা কিন্তু তা ফেইস করছি। অনেক কিছুতেই আমরা বাঁধাগ্রস্ত হচ্ছি। সেই জায়গাটিতে আপনাদের বিনয়ের সঙ্গে অনুরোধ করবো, আপনারা নিজেদের বিবেচনা নিজেদের বিবেক দিয়ে আপনারা একটু সিদ্ধান্তটা নেবেন। আর বলার কিছু নাই।”

জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘বৃহত্তর ঢাকা সাংবাদিক ফোরাম’ নামের একটি সংগঠনের দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভার বক্তব্যে এই আহ্বান রাখেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

সাম্প্রতিক সময়ের জঙ্গি হামলার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর গতিরোধ করে দেওয়ার নানামুখী প্রচেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেন আসাদুজ্জামান কামাল।

“প্রধানমন্ত্রীর গতিরোধ করে দেওয়ার জন্য নানামুখী প্রচেষ্টা চলছে। এদের যদি চিহ্নিত করতে যান তাহলে দেখবেন, যারা পঁচাত্তরের পর রগ কেটে আত্নপ্রকাশ করেছিল… তারাই কখনো হুজি, কখনো জেএমবি কখনো আনসারউল্লাহ বাংলাটিম, কখনো আনসারুল ইসলাম, কখনো হামজা ব্রিগেড বলে আত্নপ্রকাশ করেছে।

“যতগুলো আমরা ধরছি, সবগুলোর যখন শেকড়ে টান দেই, পেছনের শক্তিটা কে, কারা আশ্রয় প্রশ্রয়দাতা, কারা মাস্টারমাইন্ড, কারা তাদের উদ্ধুদ্ধ করছে- ওই একই জায়গা দেখতে পাচ্ছি।”

এসময় গুলশান-শোলাকিয়াসহ দেশে ঘটে যাওয়া জঙ্গি হামলার পেছনে কোনো বিদেশি জঙ্গিগোষ্ঠী জড়িত থাকার কথা নাকচ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

“এই দেশে কোনো আইএস নেই, আইএস আসতে পারবে না। আগে যারা সন্ত্রাসী-জঙ্গি আক্রমণ করতো, এখনও তারাই করছে… সেটাই প্রমাণিত হয়েছে।”

বক্তব্য মন্ত্রী প্রশাসনে কর্মরতরা সাংবাদিকদের উপর অনেক নির্ভর করেন জানিয়ে বলেন, “সাংবাদিকদের গুরু দায়িত্ব রয়েছে। প্রশাসনে যারা কাজ করি তারা সাংবাদিকদের উপর অনেক নির্ভর করে।

“টেকনাফ থেকে তেলুলিয়া পর্যন্ত কোনো প্রত্যন্ত অঞ্চলে কি ঘটে… মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে ডিজিটাল বাংলাদেশের ডাক দিয়েছিলেন সেখানে কিন্তু আমরা পৌছে গেছি। সব কিছুই হাতের নাগালে চলে এসেছে।”

অনুষ্ঠানে বাসসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, জাতীয় প্রেস ক্লাবের কোষাধ্যক্ষ কার্তিক চ্যাটার্জি, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহসচিব ওমর ফারুক, বৃহত্তর ঢাকা সাংবাদিক ফোরামের আহ্বায়ক ফরিদ হোসেনসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।