‘দেশে আইএস জঙ্গির অস্তিত্ব নেই, তবে দেশীয় জঙ্গি রয়েছে’ –


278 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
‘দেশে আইএস জঙ্গির অস্তিত্ব নেই, তবে দেশীয় জঙ্গি রয়েছে’ –
এপ্রিল ২১, ২০১৬ Uncategorized ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‌’দেশে আইএস জঙ্গিদের কোনো অসি্তত্ব নেই। তবে আমাদের দেশীয় জঙ্গি রয়েছে। দেশীয় জঙ্গিরা একসময় সক্রিয় ছিল। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী ও গোয়েন্দাদের তৎপরতায় তারা নিয়ন্ত্রিত রয়েছে। কোথাও তাদের মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে দেইনি।’ আজ বৃহস্পতিবার সকালে টাঙ্গাইলের নাগরপুরে নবনির্মিত ফায়ার সার্ভিস ও থানা ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানকালে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন,  ‘দেশে কত হাজার জঙ্গি সক্রিয় আছে আমাদের কাছে তার সঠিক তথ্য নেই। তবে যারা এই জঙ্গি তৎপরতার সঙ্গে জড়িত তারা সকলেই আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘সাইবার ক্রাইম যাতে না হয় সেজন্য আমরা একটি ইউনিট করেছি। সেই ইউনিটে প্রশিক্ষিত অফিসার নিয়োগ দেয়া হচ্ছে যাতে অপরাধ দমনে ইউনিটি শক্তিশালী ভূমিকা রাখতে পারে।’

তিনি আরো বলেন, সাংবাদিক শফিক রেহমানকে সুনির্দিষ্ট কারণেই গ্রেফতার করা হয়েছে। আমরা যখন কাউকে গ্রেফতার করি তখন কোনো না কোনো সুনির্দষ্টি কারণেই গ্রেফতার করি। তিনি নিজেও স্বীকার করেছেন তিনি এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তবে তদন্তাবস্থায় আমি এর বেশি কিছু বলতে চাচ্ছি না। তদন্ত শেষ হলে শীঘ্রই উনার সংশ্লিষ্টতার কথা বের হয়ে আসবে।’

এসময় মন্ত্রী আরও বলেন,  ‘শফিক রেহমানকে গ্রেফতারের বিষয়ে বিএনপি অনেক কথাই বলে। তারা ভোটের আগেই বলে ভোট কারচুপি হয়েছে। কিন্তু নির্বাচনে জয় লাভ করলে বলে ভালো নির্বাচন হয়েছে। মন্ত্রী আরও বলেন, এই ঘটনার সঙ্গে প্রাথমিকভাবে দুই/তিনজনের জড়িত থাকার কথা জানা গেছে। শীঘ্রই এই ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে।’

তনু হত্যার বিষয়ে তিনি বলেন,  ‘মামলাটি সিআইডি তদন্ত করছে। অতি শীঘ্রই হত্যার রহস্য উন্মোচিত হবে।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রথমে নাগরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন নতুন ভবনের  উদ্বোধন করেন। পরে তিনি নাগরপুর থানা ভবনের উদ্বোধন করেন। পরে উপজেলা মাঠে এক সুধী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন। এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট তারানা হালিম, স্থানীয় সংসদ সদস্য খন্দকার আব্দুল বাতেন, মনোয়ারা বেগম এমপি, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মো. মাহবুব হোসেন, পুলিশ সুপার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর, টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র জামিলুর রহমান মিরন প্রমুখ।