দেশে শনাক্ত করোনা রোগী ১০ হাজার ছাড়াল, আরও ৫ মৃত্যু


220 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
দেশে শনাক্ত করোনা রোগী ১০ হাজার ছাড়াল, আরও ৫ মৃত্যু
মে ৪, ২০২০ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

দেশে নতুন করে ৬৮৮ জনের দেহে নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ শনাক্ত করা হয়েছে। এতে দেশে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়ে গেল। এ ছাড়া এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় (রোববার সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) মোট ৬ হাজার ২৬০টি নমুনা পরীক্ষা করে ৬৮৮ জনের দেহে করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে দেশে মোট ১০ হাজার ১৪৩ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হলো।

ডা. নাসিমা আরও জানান, সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮২ জনে। নতুন মারা যাওয়া পাঁচজনই পুরুষ।

সর্বশেষ মারা যাওয়া পাঁচজনের বয়স সংক্রান্ত তথ্য তুলে ধরে তিনি জানান, এদের মধ্যে তিনজনের বয়স ষাটোর্ধ্ব, ৫০ থেকে ৬০ বছর বয়সী একজন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী একজন। পাঁচজনের মধ্যে তিনজন ঢাকার, একজন সিলেট এবং একজন ময়মনসিংহের।

এদিকে আগে থেকেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন থাকা আরও ১৪৭ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন জানিয়ে ডা. নাসিমা বলেন, এ নিয়ে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া ১ হাজার ২১০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

আইসোলেশন সংক্রান্ত তথ্য জানিয়ে তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে ৯০ জনকে এবং বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১ হাজার ৬৩৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে মুক্ত হয়েছেন ৯১ জন এবং এ পর্যন্ত আইসোলেশন থেকে মুক্ত হয়েছেন ১ হাজার ১৭৩ জন।

জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্সেস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) তথ্য অনুযায়ী, সোমবার দুপুর পর্যন্ত বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৫ লাখ ১৯ হাজার ৯০১ জনে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪৭ হাজার ৬৩০ জনের। আর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ১১ লাখ ২৯ হাজার ৮৩৪ জন।