নজরুল, লাল্টু, মজনুর নাম আ’লীগ সভানেত্রীর দপ্তরে


371 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
নজরুল, লাল্টু, মজনুর নাম আ’লীগ সভানেত্রীর দপ্তরে
নভেম্বর ৩০, ২০১৫ জাতীয় ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল হক :
সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ৩০ ডিসেম্বর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে জেলা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চুড়ান্ত করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা পৌরসভায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, কলারোয়া পৌরসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টু ও প্রাক্তন উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক সাজেদুর রহমান খান চৌধুরীর (মজনু) নাম প্রস্তাব করে দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। আজ দুই পৌরসভায় আ’লীগের কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নাম ঘোষণা  করা হবে।

সূত্র জানায়, সাতক্ষীরা পৌরসভার মেয়র পদে ৫ জন, কাউন্সিলর পদে ৯ টি ওয়ার্ডে অন্তত ২১ জন দলীয় মননোয়ন ক্রয় করেছে। অন্যদিকে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৫ জন দলীয় মনোনয়ন দাখিল করে। অন্যদিকে কলারোয়া পৌরসভায় মেয়র পদে ৪ জন, কাউন্সিলর পদে ২৪ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৩ জন মনোনয়ন পত্র দালিখ করে।

সূত্র আরো জানায়, শনিবার সকালে জেলা পরিষদে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম মুনসুর আহম্মেদ ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নজরুল ইসলাম পৌর নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর পদ প্রার্থীদের দলীয় মননোয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে দলীয় ফরম বিক্রি করেন এবং জমা নেন।

রোববার শহরের কাটিয়া বাজারস্থ সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এস এম শওকত হোসেনের অফিসে রবিবার সকাল ৯ টা হতে ১১ টা পর্যন্ত মননোয়ন বিক্রয় ও জমা নেন। সাতক্ষীরা পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র ক্রয় করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নজরুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আবু সায়ীদ, সাধারণ সম্পাদক সাহাদাৎ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের প্রাক্তন সহ-সভাপতি ও সাবেক মেয়র আশরাফুল হকসহ ৫ জন।

অন্যদিকে কলারোয়া পৌরসভায় মনোনয়ন পত্র জমা দেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টু ও প্রাক্তন উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক সাজেদুর রহমান খান চৌধুরীর (মজনু), বাজার সমিতির সভাপতি এইচ এম আরাফাত ও বঙ্গুবন্ধু মহিলা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা এম এ ফারুক। অন্যদিকে কাউন্সিলর পদে নাশকতা মামলায় জামিনে মুক্তি পাওয়া বর্তমান ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ শহিদুল ইসলামও আ’লীগের মনোনয়নপত্র জমা দেন।

সূত্র আরো জানায়, মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীদের আবেদন যাচায় করে রবিবার বিকালে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে আবেদনগুলো পাঠানো হয়েছে। কাউন্সিলরদের ব্যাপারে আজ নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।
নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্বে নিয়োজিত জেলা শ্রমিক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ হারুন অর রশিদ জানান, কলারোয়ায় মহিলা কাউন্সিলর পদে তিন জন জমা দেওয়ায় তারা দলীয় টিকিট পেয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মো. নজরুল ইসলাম দৈনিক কালের চিত্রকে জানান, দুই পৌরসভায় দলীয় প্রার্থীতায় তিন জনের নাম প্রস্তাব করে দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দপ্তরে পাঠানো হয়েছে। আজ কাউন্সিলরদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।