নির্বাচন কমিশন তথ্য দিচ্ছে না সাংবাদিকদের : সাতক্ষীরা জেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪৯ জনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার


376 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
নির্বাচন কমিশন তথ্য দিচ্ছে না সাংবাদিকদের : সাতক্ষীরা জেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪৯ জনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার
মার্চ ২, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল হক:
আগামী ২২ মার্চের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জেলার সাতটি উপজেলার ৭৮টি ইউনিয়নে ৪৯জন চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন।
বুধবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে প্রার্থীরা স্ব স্ব রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন। ফলে জেলার ৭৮টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৩৪৩জন প্রার্থী থাকলো।
জেলার সাতটি উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে সাতজন চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। ফলে সদরের ১৪টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদদ্বন্দ্বিতা করবেন ৫৪জন। আশাশুনি উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে সাতজন চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। ফলে আশাশুনির ১১টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদদ্বন্দ্বিতা করবেন ৫৩জন। কালিগঞ্জ উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে ১৭জন চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। ফলে কালিগঞ্জের ১২টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদদ্বন্দ্বিতা করবেন ৪৫জন। দেবহাটা উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে চারজন চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। ফলে দেবহাটার পাঁচটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদদ্বন্দ্বিতা করবেন ১৪জন। শ্যামনগর উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে দশজন চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। ফলে শ্যামনগরের ১২টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদদ্বন্দ্বিতা করবেন ৫৩জন। তালা উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে চারজন চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। ফলে তালার ১২টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদদ্বন্দ্বিতা করবেন ৬৬জন। তবে, কলারোয়া উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে ৫৮জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে কেউ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি। এদিকে, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাতক্ষীরার ৭৮টি ইউনিয়নের নির্বাচন সংক্রান্ত তথ্য সাংবাদিকদের কাছে সরবরাহের ক্ষেত্রে চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে সাতক্ষীরা জেলা নির্বাচন অফিস। নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা, বাছাইসহ প্রত্যাহারের কোন তথ্য দিনের দিন দিতে পারেনি জেলা নির্বাচন অফিস। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে সংবাদ কর্মীরা।
এ ব্যাপারে জেলা নির্বাচন অফিসার আহমেদ আলী জানান, জেলার ৭৮টি ইউনিয়নে একযোগে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ৩৭জন রিটার্নিং অফিসার নির্বাচনের দায়িত্ব পালন করছেন। এজন্য তথ্য দিতে সমস্যা হচ্ছে।