নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ হবে : নাসিম


272 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ হবে : নাসিম
নভেম্বর ২৩, ২০১৮ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষক নয়, এ দেশের জনগণই বড় পর্যবেক্ষক। জনগণের প্রতি আস্থাহীন রাজনৈতিক দল বিএনপি নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের ওপর ভরসা করছে।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ হবে। জনগণ ভোটের মালিক। এ নির্বাচনে জনগণ যাদের পক্ষে রায় দেবে, তারাই পরবর্তী সরকার গঠন করবে। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে ১৪ দল জনগণের রায় মেনে নেবে।

শুক্রবার সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলী ইউনিয়নে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর ও এলজিইডি’র চলমান উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি। এ ছাড়াও তিনি ওই এলাকার বিভিন্ন স্থানে সমাবেত জনতার উদ্দেশে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র নাসিম সাংবাদিকদের আরও বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্বে বিএনপি ও অন্যান্য দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে, এটি সুখের কথা। আওয়ামী লীগও চায় দেশের নিবন্ধিত সকল দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক। সকল দলের অংশগ্রহণে প্রতিদ্বন্ধিতামূলক এ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ আবারও সরকার গঠন করবে।

কিন্তু কোন দল যেন নির্বাচন থেকে সরে গিয়ে বিদেশিদের কাছে অসত্য অভিযোগ না করে তার জন্য তিনি সকল রাজনৈতিক দলের প্রতি আহবান জানান।

তিনি বলেন, কোন অন্যায় বা ভুল হলে তার বিচার এ দেশের জনগণই করবে। বিদেশিরা নয়।

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গত ১০ বছরে যে উন্নয়ন করেছে তা অভূতপূর্ব উল্লেখ করে নাসিম বলেন, নির্বাচনে নৌকার বিকল্প নেই। মানুষ শান্তিতে থাকতে চায়, উন্নয়ন চায়। শান্তি ও উন্নয়নের স্বার্থে জনগণ আবারও নৌকায় ভোট দেবে। এ দেশের মানুষ জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতি প্রত্যাখান করেছে। যারা জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতি করে সেই দলকে মানুষ আর ভোট দেবে না।

দেশে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সকল রাজনৈতিক দলকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, নির্বাচনী ডামাঢোল বেজে উঠেছে। জনগণও নির্বাচনমুখী। সরকার দেশে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে অঙ্গিকারাবদ্ধ। নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ রক্ষার দায়িত্ব সরকারের একার নয়, দেশের সকল গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দলেরও সহযোগিতা করতে হবে। কোন অপশক্তি যেন শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করতে না পারে সেজন্য সকলকে সজাগ থাকতে হবে।

এ সময় তার সঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু ইউসুফ সূর্য্য, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল বারী শেখ, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি আব্দুল লতিফ তারিন, জেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল হাকিম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জেহাদ আল ইসলামসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।