নেইমারের হুংকার


361 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
নেইমারের হুংকার
জুলাই ২৮, ২০১৬ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক :
ব্রাজিলের হয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় পাঁচে রয়েছেন। মাত্র ২৪ বছর বয়সে নেইমার দ্য সিলভা চমকে দেওয়ার মতো অনেক কিছুই করে দেখিয়েছেন। কিন্তু এর পাশাপাশি আরও একটা দিক রয়েছে ব্রাজিলিয়ান ১০ নম্বরের। তার নৈশ জীবন, তার লেট নাইট পার্টি।

অলিম্পিকে নেইমারকে ঘিরেই এখন সোনার স্বপ্ন দেখছে ব্রাজিল। কিন্তু এই নৈশ জীবন আর পার্টি কি তার খেলায় প্রভাব ফেলবে না? এই নেইমারকে নিয়ে কি সত্যিই স্বপ্ন দেখা যায়? অলিম্পিক অভিযান শুরুর আগে বুধবার ছিল ব্রাজিল অধিনায়কের প্রথম সংবাদ সম্মেলন। আর প্রশ্নটা শোনা মাত্রই মেজাজ হারালেন ব্রাজিলের ‘ওয়ান্ডার কিড’।

তিনি বলেন, ‘‘চব্বিশ বছর বয়সে আমি কী কী পেয়েছি, সেটা আপনি জানেন? আমার যা টাকা আছে, সেটা কি আপনার আছে? আমার যা যা আছে, সে সব আপনার থাকলে আপনি কী করতেন?’’ এর পর না থেমেই চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক, ‘‘বেশ করেছি পার্টি করেছি। কেন পার্টি করব না? কেউ আমায় পার্টি করা থেকে আটকাতে পারবে না।’’

নেইমারের এই বিস্ফোরক মন্তব্যের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠে যায়। বিশ্বের বিভিন্ন নিউজ ওয়েবসাইটের শিরোনামগুলোর রিং টোন মোটামুটি দাঁড়িয়ে যায়— অলিম্পিকে সময় পার্টি করার শপথ নেইমারের।

যতই তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়ে যাক, নিজের রুটিন যে তিনি পাল্টাবেন না, তা বুঝিয়ে দিয়েছেন নেইমার। যিনি ফুটবলের পাশাপাশি জীবনে নাইটক্লাবকেও রাখতে চান। তারকার মন্তব্য, ‘‘কাজ ঠিক করলে ম্যাচের আগে রাতে পার্টি করলেও কোনও অসুবিধা নেই। আমি বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরে বেড়াতে ভালবাসি। সেটা বন্ধ করব কেন?’’

এরপর একটু শান্ত হয়ে নেইমার বলেন, ‘‘আপনারা আমার লাইফস্টাইল দিয়ে আমাকে বিচার করছেন কেন? আমাকে বিচার করতে হলে মাঠে আমার পারফরম্যান্স দিয়ে বিচার করুন।’’ কিন্তু তাতেও যে নেইমার নিয়ে বিতর্কের ঝড়টা থামছে, এমন নয়।

তবে সংবাদ সম্মেলনের আক্রমণের ঝাঁঝ অবশ্য কিছুটা কমে যায় রাতে। যখন তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেন, ‘‘দেশের হয়ে খেলার থেকে বড় সম্মান আমার কাছে কিছু নেই।’’

কিন্তু এই বিতর্ককে চাপা দিতে গেলে সম্ভবত অলিম্পিক সোনার থেকে কম কিছু পেলে চলবে না নেইমারের।