পতেঙ্গা সৈকতে আনন্দ-অশ্রুতে দেবীকে বিদায়


112 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পতেঙ্গা সৈকতে আনন্দ-অশ্রুতে দেবীকে বিদায়
অক্টোবর ২৬, ২০২০ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

চট্টগ্রামে বিজয়া দশমীর আনুষ্ঠানিকতা শেষে পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে প্রতিমা বিসর্জন করা হয়েছে। সোমবার দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত সমুদ্র সৈকতে একে একে প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হয়।

বির্সজন ও দেবী দুর্গাকে বিদায় জানাতে সমুদ্র সৈকতে হাজার হাজার ভক্ত ও অনুরাগী ভিড় করেন। সকাল ১১টা থেকে চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ থেকে প্রতিমা বিসর্জনের জন্য ট্রাকবাহী প্রতিমা নিয়ে ঢাক-ঢোল বাজিয়ে পূজারি ও ভক্তরা ছুটে যান সৈকতে। শপখ উলুধ্বনি ও বাদ্যের ঘণ্টা বাজিয়ে ‘জয়, দুর্গা মায়ের জয়’ বলে একের পর এক প্রতিমা ভাসিয়ে দেওয়া হয় সাগরে। বিকেল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত প্রায় ৯০টি প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পতেঙ্গা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান জানান, পতেঙ্গা সৈকতে বিকেল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত ৯০টি প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হয়। বিসর্জন ভালোভাবে করতে সৈকত ও আশপাশ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে এবার প্রতিমা বিসর্জনে কিছু বিধি-নিষেধ রয়েছে। বেশি মানুষের সমাগম করতে দেওয়া হচ্ছে না।

মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট চন্দন তালুকদার বলেন, নগরের ১৬টি থানায় ২৭৩টি মণ্ডপে এবার দুর্গাপূজার আয়োজন করা হয়। পরিষদের পক্ষ থেকে সবাইকে সোমবার সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে প্রতিমা বিসর্জন দেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। সেই মোতাবেক বিসর্জন দেওয়া হচ্ছে। পতেঙ্গা ছাড়াও নেভাল-২, অভয়মিত্র ঘাট এবং কালুরঘাট সেতু এলাকায় কর্ণফুলী নদীতে প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হচ্ছে।