পাইকগাছার গদাইপুরের পাল পরিবারের অসহায় জীবন : মেলেনি কোন ত্রাণ সামগ্রী


345 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছার গদাইপুরের পাল পরিবারের অসহায় জীবন : মেলেনি কোন ত্রাণ সামগ্রী
মে ৬, ২০২০ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

খুলনার পাইকগাছার গদাইপুর ইউনিয়নের কর্মহীন অসহায় পালপাড়ার কেউই কোন প্রকার খাদ্য বা ত্রাণ সামগ্রী পায়নি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, হিতামপুরের পালপাড়ার ৫০ পরিবার মৃৎশিল্পের সাথে জড়িত ছিল। হাঁড়ি, পাতিল, কলস তথা মাটির তৈরী জিনিসপত্র বিক্রি করে তাদের জীবন-জীবিকা নির্বাহ করত। বর্তমানে প্লাস্টিক, মেলামাইন ও স্টিলের যুগে মাটির তৈরী আসবাবপত্র সবিই বিলুপ্তের পথে। বর্তমান ১৬টি পরিবার শুধুমাত্র গাছের চারা তৈরীর পাত্র ছাড়া তেমন কোন কাজ নেই বলে নরেন্দ্রনাথ পাল জানান। মহামারী করোনা ভাইরাসের সময়ে তাদের মাটির তৈরী কোন কিছুই বিক্রি হচ্ছে না। ফলে তারা মানবেতর জীবন-যাপন করছে। ইতোমধ্যে সরকার ৭নং গদাইপুর ইউনিয়নে সাড়ে ৬ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দিয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। সরকারি ও স্থানীয়ভাবে অনেকেই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করলেও এ পরিবারগুলোর মধ্যে কেউ কোন প্রকার সাহায্যের হাত বাড়ায়নি বলে বিধান পাল ও সুব্রত পাল জানান। এ অবস্থায় সরেজমিনে দেখা যায়, ১১২ বছরের বৃদ্ধা বেহুলা পাল নিজ হাতে মাটির জিনিসপত্র তৈরী করছে এবং সাংবাদিকদের দিকে তাকিয়ে বলেন, আমাদের এই চরম দুর্দিনে কেউ খোঁজ-খবর নেয়নি। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য শেখ জাকির হোসেন লিটন সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ১শ কেজি চাল পেয়েছি। ৫ কেজি করে ২০জনকে দিয়েছি। যা পালপাড়া পর্যন্ত দেয়া সম্ভব হয়নি। পরবর্তীতে দেয়া হবে।

#