পাইকগাছার দেলুটিতে আবারও ভাঙ্গন : ব্যাপক ক্ষতি


158 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছার দেলুটিতে আবারও ভাঙ্গন : ব্যাপক ক্ষতি
আগস্ট ২১, ২০২০ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছার চকরি বকরি বদ্ধ জলমহলের দক্ষিণ পাশ ভেঙ্গে আবারও তিনটি এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ঘুর্ণিঝড় আম্পানের পর এ এলাকাটি তিনবার ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে। শুক্রবার সকাল ৮টায় জোয়ারের পানির চাপে এটা ভেঙ্গে যায়। যাতে পারমধুখালী, চকরিবকরি ও গেওয়াবুনিয়া গ্রাম ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। কাঁচা ঘর বাড়ী, ফসলের ক্ষেত, পুকুর ও চিংড়ি ঘেরের ক্ষতি হয়। শতাধিক পরিবার জলমগ্ন। গত আম্পানের পর এনিয়ে তিনবার ভাঙ্গনের কবলে পড়লো এলাকাটি। অমাবশ্যার জোয়ারের প্রচন্ড পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় পাইকগাছার বিভিন্ন নিম্নাঞ্চলে ভাঙ্গনের পাশাপাশি ওয়াপদা ছাপিয়ে এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। গত বুধবার থেকে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার সকালে গড়ইখালীর গুচ্ছগ্রাম, বুধ ও বৃহস্পতিবার সোলাদানার বেতবুনিয়া গুচ্ছগ্রামসহ তিনটি এলাকা, গদাইপুর ইউনিয়নের কচুবুনিয়া এলাকা ও লতা ইউনিয়নের একটি এলাকা জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে। স্থানীয়ভাবে বাঁধ মেরামত করলেও টেকসই বাঁধের দাবী জানিয়েছেন সোলাদনা ইউপি চেয়ারম্যান এসএম এনামুল হক, দেলুটি চেয়ারম্যানরা রিপন কুমার মন্ডল ও গড়ইখালী ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বিশ্বাস। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী সরেজমিনে যেয়ে সার্বিক খোঁজ খবর নিয়েছেন এবং দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

#