পাইকগাছায় অবহেলিত এলাকার নাম ভড়েঙ্গার চক : দেখার কেউ নেই


246 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছায় অবহেলিত এলাকার নাম ভড়েঙ্গার চক : দেখার কেউ নেই
জুন ২৩, ২০১৯ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

খুলনার পাইকগাছায় অবহেলিত এলাকার নাম লস্করের ভড়েঙ্গারচক। যা আওয়ামী লীগ অধ্যুষিত এলাকা হলেও সেখানে দীর্ঘদিন ধরে লাগেনি কোন উন্নয়নের ছোঁয়া। উপজেলার লস্কর ইউপির খড়িয়া গ্রামের মিস্ত্রি বাড়ী নামক স্থান হতে উত্তর খড়িয়া শিবসা নদীর ওয়াপদা বাধ পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার ভড়েঙ্গার চক গ্রাম। যেখানে শতভাগ জনগোষ্ঠি সনাতন ধর্মাবলম্বী। গ্রামটির অধিকাংশ সড়কগুলো অতি সংকীর্ণ ও কাচা। যা চলাচলের জন্য খুবই দুর্বিসহ। বর্ষা মৌসুমে সাধারণ মানুষ খুব প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বেরুতে পারে না। স্কুলগামী ছেলে-মেয়েদের বিদ্যালয়ে যাওয়া আসা সম্পূর্ণ বন্ধ থাকে। ইতিপূর্বে সকল নির্বাচন পূর্ববর্তী সময়ে প্রার্থীরা বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দিলেও নির্বাচনের পর তা ভুলে যায়। গ্রামে মিলনবীথি নামক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও খড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় রয়েছে। গ্রাম হতে শত শত ছেলে মেয়ে বিদ্যালয় দুটিতে যাতায়াত করে। রাস্তার বেহাল দশার কারনে কোন যানবাহন সহজে প্রবেশ করতে পারে না। বিশেষ করে প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় দুটি বর্ষাকালে এক প্রকার অঘোষিত ছুটি ভোগ করে। এছাড়া উক্ত এলাকায় রয়েছে চিংড়ি চাষের একাধীক মৎস্য লীজ ঘের। ভাঙ্গাচুরা রাস্তার কারণে এলাকায় উৎপাদিত বাগদা, গলদা ও বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ও সবজি বিভিন্ন এলাকায় সরবরাহ করা অসম্ভব হয়ে পড়ে। মোটর সাইকেল ও বাইসাইকেলই একমাত্র যাতায়াতের মাধ্যম হয়ে পড়েছে। যা কয়েক কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে ঘুরে আসতে হয়। স্থানীয় দুলাল চন্দ্র মন্ডল (৭৫) বলেন, এখানকার শতভাগ ভোটার হিন্দু, তারা নৌকায় ভোট দিয়ে থাকে। দলটি দীর্ঘ ১০ বছর ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত থাকা স্বত্ত্বেও এ গ্রামের কোন উন্নয়নমূলক কাজ করেনি। স্থানীয় জনসাধারণ অবহেলিত এলাকায় উন্নয়নের জন্য খুলনা-৬ (পাইকগাছা-কয়রা) সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবুর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

#