পাইকগাছায় বিরোধপূর্ণ ইট ভাটা নিয়ে পাল্টা-পাল্টি মামলায় ৫’শ আসামী


1282 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
পাইকগাছায় বিরোধপূর্ণ ইট ভাটা নিয়ে পাল্টা-পাল্টি মামলায় ৫’শ আসামী
এপ্রিল ২৫, ২০১৬ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি :
পাইকগাছায় বিরোধপূর্ন আলোচিত এস,এ,কে ব্রিকস্ জিগজ্যাগ ইট ভাটা নিয়ে এ পর্যন্ত পাল্টাপাল্টিভাবে ৪ টি মামলায় প্রায ৫’শ জনকে আসামী করা হয়েছে। গ্রেফতার আতঙ্কে ভুগছেন অনেকেই। সর্বশেষ আহত ইট ভাটার ম্যানেজার খুলনায় চিকিৎসাধীন জয়দের মন্ডল এর দায়ের করা মামলায় পুলিশ পৌরসভা থেকে ব্যবসায়ী মিনারুল ইসলাম ও চাঁদখালী এলাকা থেকে ছালেক গাজী নামে দুই যুবককে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। গতকাল থানার সেকেন্ড অফিসার এস,আই জহুরুল আলম ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস,আই স্বপন যৌথ অভিযান চালিয়ে এ দুইজনকে আটক করেন। ওসি আশরাফ হোসেন জানিয়েছেন, এ মামলায় এ পর্যন্ত ৬ জনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে এবং অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযানটি চলমান রয়েছে। উল্লেখ্য পুলিশ ও এলাকাবাসী জানিয়েছে, ১৬ এপ্রিল উপজেলার চাঁদখালীর হাচিমপুরের বিরোধপূর্ণ এস,এ,কে ব্রিকস্ জিগজ্যাগ ইট ভাটাটি পাইকগাছা-কয়রার এম,পি পক্ষের লোকজন আযম খানের পক্ষে পাল্টা দখল করেন।  ঘটনার সময় রুহুল আমিন খাঁন সমর্থিত বাবু গাইন পক্ষের লোকজন আত্মরক্ষার্থে স্থানীয় একটি বাড়ীতে আশ্রয় নিলে প্রতিপক্ষের হামলা ও মারপিটে এ মামলায় বাদী ভাটা ম্যানেজার জয়দেব মন্ডল সহ ৬জন মারাত্মকভাবে আহত হয়। এ ঘটনায় আহত জয়দেব মন্ডল, এম,পি পুত্র শেখ মনিরুল ইসলাম, আযম খাঁন সহ প্রায় দেড়’শ ব্যক্তির বিরুদ্ধে ১৭ এপ্রিল থানায় মামলা দায়ের করেন যার নম্বর-১৪। পুলিশ জানিয়েছেন, এ ভাটা কেন্দ্রীক বিরোধে এ পর্যন্ত পাল্টাপাল্টি ৪ টি মামলায় প্রায় ৫’শ জনকে আসামী করা হয়েছে।